মহুয়া হাজং এর মামলা কেন নেবেন না!

Thu, Dec 16, 2021 6:31 PM

মহুয়া হাজং এর মামলা কেন নেবেন না!

ইমতিয়াজ মাহমুদ: মহুয়া হাজংএর পিতা মনোরঞ্জন হাজং আহত হয়েছেন গাড়ীর ধাক্কায়। মনোরঞ্জনএর একটা পা কেটে ফেলতে হয়েছে, স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছে গুরুতর। এখন তিনি বারডেম হাসপাতালে জুঝছেন। এইরকম একটা দুর্ঘটনা যখন হয় তখন একটা মামলা হবে সেটাই তো স্বাভাবিক। গাড়ীটি কে চালাচ্ছিল, গাড়ীর নম্বর সব কিছু জানা গেছে। গাড়ীর চালক এবং অন্য একজনকে লোককে মানুষজন মিলে পাকড়াও করে বনানী থানায়ও নিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু বনানী থানা এই ঘটনায় মহুয়া হাজংএর মামলা নিচ্ছে না।

মহুয়া হাজং খবরের কাগজকে বলেছেন, ঘটনা যারা ঘটিয়েছে ওদের নাম দিয়ে স্পষ্ট করে মামলার এফআইআর লিখেছিলেন, কিন্তু পুলিশের লোকজন ওকে বলেছে এই নাম থাকলে মামলা নেওয়া যাবে না, আসামীর নামের ঘরে লিখতে হব অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি। মহুয়া তাও করেছেন, তারপরও পুলিশ গতরাত পর্যন্ত মামলা নেয়নি। প্রথম আলো লিখেছে ওরা পুলিশের কর্তাদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছে, কেউ কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি, কেউ কেউ বলেছে ওরা কিছু জানে না, কেউ ফোনই ধরেনি, একজন বলেছে পরে যোগাযোগ করেন।  

একজন লোক যদি থানায় একটি এফআইআর নিয়ে যায় তাইলে স্বাভাবিক প্রক্রিয়া হচ্ছে যে সেই এফআইআরটি একটি মোকদ্দমা হিসাবে নিবন্ধিত হবে এবং মামলাটি তদন্তের জন্যে একজন তদন্ত কর্মকর্তা নিযুক্ত হবে। তদন্ত কর্মকর্তা তদন্ত করে যদি দেখেন যে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে তাইলে তিনি অভিযোগপত্র দিবেন আদালতে, নাইলে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিবেন। এরপর বাকিটা আদালত ফয়সালা করবেন। কিন্তু পুলিশ এফআইআরটি গ্রহণী করবে না এটা তো স্বাভাবিক ঘটনা নয়। আর পুলিশ অভিযোগকারীকে বলবে আসামীর নাম উল্লেখ করবেন না সেটা তো সম্পূর্ণ অবৈধ আরকি।

মহুয়ার সাথে এবং মহুয়ার পিতার সাথে পুলিশ যে আচরণ করেছে সেটা অন্যায়। অন্যায়। মহুয়া এবং মহুয়ার পিতা একজন আদিবাসী নারী বলে বলছি না, মহুয়া নিজেও একজন পুলিশ কর্মকর্তা সেজন্যেও বলছি না। এই দেশের একজন নাগরিক সংক্ষুব্ধ হয়ে থানায় একটা মামলা করতে গেছে, তার মামলাটি কেন নিবেন না? অভিযুক্ত যেইই হোক, এমনকি তিনি যদি আমার প্রধানমন্ত্রীও হন বা আমার প্রধান বিচারপতিও হন তবুও তো আপনারা মামলা নিবেন। আইনগতভাবে যদি কোন বাধা থাকে, যেমন রাষ্ট্রপতি, ডিপ্লোমেট এবং এরকম আর কিছু ব্যক্তি যাছে যাদের ক্ষেত্রে কিছু দায়মুক্তি বা ইমিউনিটি আছে সেগুলি আলাদা কথা। সেরকম কিছু থাকলে বলবেন যে না, এই কারণে মামলা নিতে পারছি না। কিন্তু অন্যান্য ক্ষেত্রে মামলা কেন নিবেন না?

এটা অন্যায়। আমি এই অন্যায়ের নিন্দা করি। প্রতিবাদ করি। দাবী করছি যে যেসব পুলিশ কর্মকর্তা এই অন্যায়ের জন্যে দায়ী ওদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক। স্বাধীন দেশে একজন নাগরিকের সাথে এইরকম অন্যায় হবে কেন? নিন্দা করছি। তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

লেখকের ফেসবুক পোষ্ট


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Future Station Ltd.
উপরে যান