বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের কোটা বাতিল করেছে মালয়েশিয়া

Sun, Jan 23, 2022 1:18 AM

বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের কোটা বাতিল করেছে মালয়েশিয়া

বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের বিশেষ কোটা বাতিল করেছে মালয়েশিয়া সরকার। সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি হামজাহ জয়নুদ্দিন।

শনিবার মালয়েশিয়ার দ্য স্টার, নিউ স্ট্রেইট টাইমস, মালয়মেইল ডটকম ও দ্যা মালয়েশিয়ান ইনসাইটের খবরে এ তথ্য জানানো হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক বলেন, ‌‘এখন থেকে নিয়োগকর্তাদের কাছ থেকে আসা প্রত্যেকটি আবেদনপত্র মন্ত্রণালয়ের মূল্যায়ন কমিটিতে পাঠানো হবে। সরকারে সব শর্ত পালন সাপেক্ষে যোগ্য কর্মীদের ভিসা দেওয়া হবে।

 

তিনি বলেন, লোকজন যাই বলুক না কেন; কোনো নিয়োগকর্তা বিদেশি কর্মী নিয়োগ করতে চাইলে তাকে আইন অনুযায়ী কমিটির অনুমোদন নিয়ে নিয়োগ দিতে হবে। উদাহরণ হিসেবে দেশটির বৃক্ষরোপণ খাতের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, নিয়োগকর্তাকে বিদেশি কর্মী কোটা এবং কতজন এ খাতের কাজের জন্য প্রয়োজন তা জানতে হবে। ধরা যাক, কোনো বাগানে কাজের জন্য এক হাজার কর্মীর প্রয়োজন, কিন্তু সেখানে পর্যাপ্ত আবাসনের ব্যবস্থা নেই। এ ক্ষেত্রে নিয়োগকর্তা মাত্র ৪০০ জন শ্রমিক নিয়োগ দিতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, ‘সরকারে নিয়ম মেনে নিয়োগ কর্তাকে আইনানুগভাবে সব পথ অবলম্বন করতে হবে। নিয়োগ করতে চাইলে নিয়োগ কমিটি ও মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিতে হবে।’

 

কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারে দেওয়া নিয়ম-কানুন মানতে হবে। এসব নিয়ম প্রতিপালনে ব্যত্যয় হলে কর্মী নিয়োগের অনুমোদন কেউ পাবে না বলে জানান তিনি। বলেন, কারও ১০০ জন কর্মী প্রয়োজন হলে যদি কর্মীদের বসবাসের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকে তবে তাকে কর্মী নিয়োগের অনুমোতি দেওয়া হবে না।

 

অতিরিক্ত কর্মী নিয়োগেও কঠিন বিধিনিষেধের কথা জানান দাতুক সেরি হামজাহ। তিনি বলেন, কোনো নিয়োগকর্তা অতিরিক্ত কর্মী নিয়োগ দিতে চাইলে মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের কাছে আবেদন করতে হবে।

হামজাহ বলেন, কর্মীদের কল্যাণের কথা ভেবেই কর্মী নিয়োগের নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এখন বিদেশি কর্মীদের কর্মসংস্থানের জন্য দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করতে হবে। আগে কর্মী নিয়োগে আবেদন করতে হতো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন


Designed & Developed by Future Station Ltd.
উপরে যান