জীবন কি সত্যি সত্যি জীবিকার চেয়ে দামি?

Wed, Apr 21, 2021 6:38 PM

জীবন কি সত্যি সত্যি জীবিকার চেয়ে দামি?

নাঈমুল ইসলাম খান: [১] ‘জীবিকার চেয়ে জীবন দামি’ কথাটা প্যানডেমিকের এই সময়ে অনেকেই বলছেন। আমি ভাবছি কথাটি সর্ব সাধারণের জন্য সত্যি কি না, নাকি কারো কারো জন্য সত্যি।

[২] সরকারি এবং কিছু বেসরকারি চাকরিজীবী আছেন, যারা নিজেদের জীবন মূল্যবান ভেবে ঘরে থাকতে পারেন। কোনও অসুবিধে নেই, কারণ মাস শেষে বেতন নিশ্চিত। এসময়টা তাদের জন্য উপভোগ্যও বলা চলে।

[৩] বাস্তবতা হচ্ছে, আধুনিক রাষ্ট্র ও জীবন কাঠামোতে অনেক সরকারি ও বেসরকারি কর্মজীবীকে ঘর থেকে বেরুতেই হচ্ছে। পুলিশ, চিকিৎসক, নার্স, প্রকৌশলী, সংবাদকর্মী এমন অনেক চাকুরে রয়েছেন যারা জরুরি সার্ভিসের আওতায় পড়েন, তারা কী জীবিকার চেয়ে জীবনকে বড় করে মানতে পারছেন? ঘরে নিরাপদে থাকতে পারছেন? তারা যদি সকলের মতো ঘরে থাকতে শুরু করেন তখন কিন্তু সকলেরই মরণ।

বাংলাদেশের শহরে গার্মেন্টসসহ সকল কারখানা শ্রমিক এবং গ্রামে গ্রামে যে কৃষি কর্মীরা আছেন তারা কি চাইলেও জীবিকার চেয়ে জীবনকে গুরুত্বপূর্ণ মেনে নিজেদেরকে ঘরের মধ্যে নিরাপদে রাখতে পারছেন?

[৪] দেশের স্বল্পআয়ের আইনজীবীরা, আদালত বন্ধ থাকলে কি রোজগার করতে পারছেন? তাদের অনেকেরই ‘দিন আনি দিন খাই’ অবস্থা। যেমন: শহরে দিনমজুর অথবা রিক্সাচালক, তাদেরও সবার কি জীবিকার চেয়ে জীবন অধিক গুরুত্বপূর্ণ? এটা বিশ্বাস করা যায়?

[৫] এই করোনায় দেশে এবং বিদেশে অনেক ধনী আরও ধনী হয়েছেন, অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি মুনাফা করেছে, কিন্তু এই মুষ্টিমেয়র পাশাপাশি ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠ ছোট ও মাঝারি ব্যবসায়ী, ছোট প্রতিষ্ঠানগুলো কেবল অস্তিত্ব রক্ষা করতেও হিমশিম খাচ্ছে। বাংলাদেশে এবং পৃথিবীর সবচেয়ে ধনীদেশ যুক্তরাষ্ট্রেও এই কথা সত্য যে, লাখ লাখ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে গেছে, আরও অনেকের হবে। তাদের প্রতিদিনের হাহাকারের খোঁজ ক’জন রাখেন?

[৬] আমাদের মতো অপেক্ষাকৃত নবীন সংবাদপত্র করোনা মুক্তকালে যেমন দৃঢ়ভাবে সাফল্যের পথে অগ্রসর হচ্ছিলো, তারা এখন অস্তিত্ব রক্ষার নির্মম লড়াইয়ে পর্যুদস্ত হতে চলেছে। আমাদের জীবিকা ধ্বংস হওয়া থেকে রক্ষা করতেই আমাদের জীবন উৎসর্গীকৃত। অনেক মানুষের কোনো বিনিয়োগ-উদ্যোগ নেই তাদের জন্য জীবিকার চেয়ে জীবন নিশ্চয়ই দামি।

[৭] এমন দূরবস্থার দায় অনেকটা করোনা মহামারির হলেও রাষ্ট্রের প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামোর ভেতরে যে দুর্নীতি, অনিয়ম, বিশৃঙ্খলা ও নৈরাজ্য বিদ্যমান সেটা বর্তমান এই মহামারির বিপর্যয়কে আরও বেশি ভয়ংকর করে তুলছে।

রাষ্ট্রে একই সাথে আইন ও ন্যায়ের শাসন প্রতিষ্ঠা করা না গেলে, শুদ্ধাচার এবং সুচিন্তা প্রতিষ্ঠা করা না গেলে, যেকোনও আচমকা মহামারি কিংবা প্রাকৃতিক দুর্যোগ আমাদেরকে বিপর্যস্ত করবে বহুগুণ বেশি। 

অনুলেখক: ফাহমিদা তিশা

রচনার তারিখ: ১৯ এপ্রিল ২০২১

লেখকের ফেসবুক থেকে


Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান