আপনার উপর ভীষন মন খারাপ করেছি সালাম ভাই

Sat, Apr 18, 2020 1:52 AM

আপনার উপর ভীষন মন খারাপ করেছি সালাম ভাই

শওগাত আলী সাগর: আপনার উপর প্রচন্ড মন খারাপ করেছি সালাম ভাই। দেখছেন না- সেই সন্ধ্যা থেকে একটা কথাও বলিনি। শহরের সবাই আপনাকে নিয়ে কতো কথা বলছে, আমিই কেবল চুপ করে আছি। মধ্যরাতে আমার বন্ধু আজিম (আজিমের কথা মনে আছে তো আপনার, চাকসুর জিএস আজিমউদ্দিন) ফোন করে যখন আপনার কথা বলতে শুরু করলো, আমার গলায় তখন হাজারো বাস্প জমা হতে শুরু করেছে। বিশ্বাস করেন, সালাম ভাই- আমি খুবই কৌশলে  সেটি লুকিয়ে ফেলেছি। আজিম বুঝতেই পারেনি।

  কেন করেছি জানেন সালাম ভাই! কেনো সন্ধ্যা থেকে একেবারে চুপ হয়ে আছি সেটা জানেন! অভিমানে। কথা দিয়ে কথা না রাখলে অভিমান হবে না বুঝি! মনে আছে সালাম ভাই, বাংলাদেশ সেন্টারে লুটেরা বিরোধী আমাদের শেষ সভায় আপনি বলেছিলেন, আপনারা কেউ যদি নাও থাকেন, আমি একা লুটেরাদের বিরুদ্ধে রাস্তায় দাঁড়াবো। আমি একা আন্দোলন করবো। কানাডাকে লুটেরাদের অভয়ারন্য হতে দেয়া হবে না!  সেই কথাটা কি আপনি ভুলে গেছেন সালাম ভাই! সেই প্রতিশ্রুতি! একাত্তরে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করা মুক্তিযোদ্ধা যদি কথা দিয়ে সেটা ভুলে যায়, তা হলে রাগ হয় না বুঝি!

সেদিনের সভায়ই তো প্রথম আমি সবাইকে জানিয়ে দিয়েছিলাম- আমাদের এই লুটেরা বিরোধী আন্দোলনের বীজটা আসলে আপনি। এর পর আমাদের দেখা হ্ওয়ার কথা ছিলো। এগলিন্টন স্কয়ার মলের ফুড কোর্টে বসে এক সাথে কফি খাবো, আন্দোলনের পরবর্তী ধাপগুলো নিয়ে আমরা কথা বলবো। মনে আছে সালাম ভাই, এগলিনটন স্কয়ার মলের ফুড কোর্টে বসে কফি খেতে খেতেই  লুটেরা নিয়ে আমাদের  প্রথম আলোচনাটা হয়েছিলো। তারপরের ঘটনাগুলো তো আপনি জানেনই। স্ফুলিঙ্গ কিভাবে দাবানল হয়ে উঠছিলো  তাতো আপনার নিজের চোখেই দেখা।

এর মাঝেই তো আবার  নতুন লড়াই শুরু হয়ে গেলো- করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই। সেই লড়াইয়ের শুরুর দিকেই আপনি হাসপাতালে চলে গেলেন। আমরা থাকলাম ময়দানে। ভাবলাম- করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইটা শেষ হলেই আমরা আবার করোনার চেয়েও ভয়ংকর ভাইরাস – লুটেরা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইটা শুরু করবো।  সেই লড়াইয়ে আবারো আপনি সম্মুখ সারিতে দাড়িয়ে যাবেন। কিন্তু কি আশ্চর্য! আপনি আপনার প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে কোথায় যেনো চলে গেলেন! কেনো গেলেন সালাম ভাই!

বাংলাদেশ সেন্টারটার সেই সভাটার পরও আপনার সাথে টেলিফোনে কথা হয়েছিলো। বলেছিলেন- একদিন কফি খেতে হবে। আমি বলেছিলাম- এগলিন্টন স্কয়ার মলে গিয়ে আপনাকে ফোন দেবো- চলে আসবেন।

করোনার কাল চলে গেলে ঠিকই তো আমি এগলিনটন স্কয়ার মলের ফুড কোর্টে গিয়ে দুই কাপ কফি নিয়ে বসবো। আপনার সেলফোনে কলও  দেবো। আপনি কি তখন সাড়া দেবেন না সালাম ভাই! লুটেরাদের বিরুদ্ধে লড়াইটা  আবার শুরুর আলোচনাটা আমাদের করতে হবে না!


Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান