করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্ক থাকার প্রয়োজন আছে, ঘাবড়ানোর কিছু নেই

Tue, Mar 3, 2020 7:19 PM

করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্ক থাকার প্রয়োজন আছে, ঘাবড়ানোর কিছু নেই

শিতাংশু গুহ : করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্ক থাকার প্রয়োজন আছে, ঘাবড়ানোর কিছু নেই। ওয়াসিংটন ষ্টেট সিয়াটলে আজ পর্যন্ত ৬জন মারা গেছেন। নিউইয়র্কে ম্যানহাটনে এক মহিলা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তার বয়স ৩৯, তিনি ইরান থেকে ফিরে অসুস্থ হন। এঁরা স্বামী-স্ত্রী উভয়ে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত, সচেতন। গভর্নর এন্ড্রু ক্যুমো বলেছেন। মহিলা আক্রান্ত হলেও শারীরিক ভাবে ভালো আছেন, সেলফ কোয়ারিন্টিনে আছেন। নিউইয়র্ক সিটি মেয়র বিল ব্লাজিও সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

 

আমি ডাক্তার নই, সচেতনতা থেকে লিখছি। আমাদের অফিসে করোনা নিয়ে প্রশিক্ষন দেয়া হয়েছে। যাদের ইমিউন সিষ্টেম দুর্বল এবং বয়স্কদের এতে আক্রান্ত হবার সম্ভবনা বেশি। এতে মৃত্যুর হার ২%, ৯৮ শতাংশ রোগী ভালো হয়ে যাবার কথা! জাপানী প্রমোদতরী ‘ডায়মন্ড প্রিন্সেস থেকে উদ্ধারকৃত এক যাত্রী আরো অভয় দিয়ে বলেছেন, আমি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলাম। একদিন ঘুম থেকে উঠে দেখি জ্বর হয়েছে। শরীরে তেমন ব্যাথা-বেদনা ছিলোনা। যদি ঘরে থাকতাম, তাহলে এ নিয়ে আমি কাজে যেতাম। যাত্রীর নাম করল গোল্ডম্যান, তিনি এখন সুস্থ।

 

সিডিসি জানাচ্ছে, এর লক্ষণ হচ্ছে, কাশি, জ্বর এবং শর্টনেস অফ ব্রেথ বা শ্বাসকষ্ট। এর আসল নাম কোভিড-১৯, এটি প্রকাশের সময় ২-১৪দিন। যাঁরা অসুস্থ তাঁদের সংস্পর্শে না যাওয়া; বাইরে গেলে মুখ,চোখ,নাক স্পর্শ না করা; অসুস্থ হলে ঘরে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। হাঁচি-কাঁশি হলে টিস্যু দিয়ে মুখ ঢাকুন এবং সেটি গার্বেজ করুন; পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন। সিডিসি সুস্থদের মাস্ক না পড়ার পরামর্শ দিয়েছে। তবে যারা অসুস্থ তাদের মাস্ক পরার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, নাকঝাড়া, হাঁচি-কাঁশি হলে হাত ধুয়ে ফেলুন, অন্তত: বিশ সেকেন্ড সাবান হাত ধুতে হবে।

 

সিডিসি যাই বলুক না কেন, আপনি যদি ট্রেনে-বাসে বা এমনকি কর্মস্থলে হাঁচি দেন, সবার দৃষ্টি আপনার দিকে পড়বে। আমাদের অফিসে কেউ একটু হাঁচি দিলেই সবাই বলে, ‘করোনা? একটি মেয়ের সর্দি হয়েছিলো, তাঁকে বাড়ি যেতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। নিউইয়র্ক ষ্টেটে ৭০০ মানুষ কোয়ারেন্টিন আছেন, একজন আক্রান্ত। ইরানে এক পার্লামেন্ট সদস্য এ ভাইরাসে মারা গেছেন। পুরো যুক্তরাষ্ট্রে ৯১জন আক্রান্ত, এদের বেশিরভাগ জাপানী প্রমোদতরী ‘ডায়মন্ড প্রিন্সেস থেকে উদ্ধারকৃত।

 

 

চীন বলেছে, করোনা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে। এপেল সিইও টম কুক একই কথা বলেছেন। গত সপ্তাহ ছিলো নিউইয়র্ক শেয়ার মার্কেটে শোচনীয় অবস্থা, একযুগে এতটা খারাপ হয়নি। তবে আজ সোমবার অবস্থা ভালো। দক্ষিণ কোরিয়ায় বিপদজনক হারে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। শুক্রবার সকালে দেশটিতে ২৫৬জন আক্রান্ত ছিলো, বিকালে তা বেড়ে দাঁড়ায় ৫৭১জন। ইতালির মিলান শহরের অবস্থাও ভালো নয়। আমেরিকান এয়ারলাইন্স, ডেল্টা সেখানে আপাতত: যাচ্ছেনা।

 

ইতালিতে করোনায ৫২জনের মৃত্যু, ১৮৩৫যান আক্রান্ত, ১৪৯জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ। ইত্তেফাক জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৩হাজার ছাড়িয়েছে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানসহ আক্রান্ত দেশগুলোতে ভ্রমণে কড়াকড়ি আরোপ করেছেন। নাগরিক না হলে যুক্তরাষ্ট্রে ঐসব দেশ থেকে ভিজিট ভিসায় ঢোকা যাবেনা। ট্রাম্প বলেছেন, আমরা আগেভাগে ব্যবস্থা নিয়েছি। যুক্তরাষ্ট্র সর্বোচ্চ সতর্ক রয়েছে।

 

সৌদি আরব বেশ কটি দেশের পর্যটন ভিসা বাতিল করেছে। কিছু উমরাহ ভিসাও বন্ধ। যুক্তরাষ্ট্র এর নাগরিকদের মিলান এবং দক্ষিণ কোরিয়ার উপদ্রুত এলাকায় না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। ট্রাম্প বলেছে, ভয়ের কিছু নেই। করোনা ভাইরাস এখন পর্যন্ত বিশ্বের ৬০টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।  সানফ্রান্সিসকোর কয়েকটি শহরে স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে। মার্কিন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, কয়েকজনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে, অথচ তাঁরা দেশেই ছিলেন, কোথাও বেড়াতে যাননি, এ কারণে তাঁরা চিন্তিত।

কলকাতার দৈনিক প্রতিদিন জানাচ্ছে, করোনা ভাইরাসের উৎসস্থল চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী ইউহান শহরে ২৩জন বাংলাদেশী নাগরিক আটকে পড়েছিলেন। বাংলাদেশ তাদের দেশে ফিরিয়ে আনতে অস্বীকৃতি জানায়। ভারতীয় একটি বিমান ২৭ ফেব্রূয়ারি তাঁদের উদ্ধার করে এনেছে। তারা এখন দিল্লির একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে আছেন। হয়তো ১৪দিন পর ছাড়া পাবেন।  # guhasb@gmail.com;


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান