ট্রুডোর নিরাপত্তাহীনতা নিয়ে মুখ খুলছে না কেউ

Sun, Oct 13, 2019 6:34 PM

ট্রুডোর নিরাপত্তাহীনতা নিয়ে মুখ খুলছে না কেউ

নতুনদেশ ডটকম : কি এমন ঘটেছিলো যে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে বুলেট প্রুফ ভেষ্ট পরে নিরাপত্তা বেষ্টনী নিয়ে নির্বাচনী সভার মঞ্চে উঠতে হয়েছে! লিবারেল পার্টি বা পুলিশ এই ব্যাপারে কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে- জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন- তিনি আরসিএমপির পরামর্শ গ্রহন করেছেন।

কাল রাত থেকেই টিভি আর পত্রিকাগুলো খুটিয়ে খুটিয়ে দেখছিলাম। এমন একটি স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে পত্রিকাগুলো নিশ্চয়ই নিজস্ব অনুসন্ধানী কোনো রিপোর্ট করবে, নিদেনপক্ষে কাদের হুমকির মুখে জাস্টিন ট্রুডোকে বাড়তি নিরাপত্তা পদক্ষেপ নিতে হলো, সেই সম্পর্কে তো নিউজ থাকবে। কানাডীয়ান মিডিয়াই কেবল নয়, পুলিশ অন্যান্য রাজনৈতিক দল সবাই যেনো আমাকে হতাশ করলো।

জাস্টিন ট্রুডোর নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে- এই তথ্যটা পেয়েছিলো আরসিএমপি।আরসিএমপি যথাসময়েই প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করে পুরো তথ্য। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেয়। কিন্তু মিডিয়ার কাছে কিছুই প্রকাশ করেনি আরসিএমপি। অরসিএমপির মুখপাত্র বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া নিরাপত্তা পদক্ষেপ বিষয়ে আমরা কোনো মন্তব্য করি না। নিরাপত্তার স্বার্থেই এটি করি না আমরা।’

জাস্টিন ট্রুডোর নির্বাচনী প্রতিপক্ষ কনজারভেটিভ এন্ডু শিয়ার এবং এনডিপি নেতা জাগমিত সিং কেউই এ নিয়ে বিরুপ কোনো মন্তব্য করেননি। দুজনেই আরসিএমপিকে তড়িৎ পদক্ষেপ নেয়ায় ধন্যবাদ জানিয়েছেন, দুজনেই ট্রুডোর প্রতি সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন্।

জাস্টিন ট্রুডো আজো টরন্টোয় আছেন। সকালে তিনি ইটোবিকো এলাকায় নির্বাচনী সভায় বক্তৃতা করেছেন। সেটি অন্টারিওর কনজারভেটিভ প্রিমিয়ার ডাগফোর্ডের এলাকা। ‘ফোর্ড নেশন’ নামে একটি আলাদা সাম্রাজ্যই গড়ে তুরেছে ফোর্ড পরিবার। সেই এলাকায় নির্বাচনী প্রচারনা চালিয়েছেন ট্রুডো। কিন্তু কোথাও কোনো বক্তৃতায় তার উপর হামলার ষড়যন্ত্র, কিংবা হামলাকারীদের দেখে নেবার কোনো হুমকি দেননি তিনি। বরং সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, তিনি আগে যেভাবে নির্বাচনী প্রচারনা চালাতেন, ঠিক সেভাবেই প্রচারনা চালিয়ে যাবেন।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান