কানাডায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের বিজয় দিবস ২০১৮ উদযাপন

Sat, Dec 22, 2018 1:30 AM

কানাডায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের বিজয় দিবস ২০১৮ উদযাপন

নতুনদেশ ডটকম: যথাযথ মর্যাদা এবং ভাবগাম্ভির্যের সাথে বাংলাদেশ হাইকমিশন, কানাডা ৪৮তম  মহান বিজয় দিবস পালন করে। সকাল ১০টায় বাংলাদেশ ভবনে  হাই কমিশনার মিজানুর রহমান কর্তৃক জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচীর শুরু হয়। পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানসহ শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন হাইকমিশনের সহকারী কন্স্যুলার কর্মকর্তা জনাব মোঃ রফিকুল ইসলাম।

এই উপলক্ষ্যে  অটোয়াস্থ ব্রনসন সেন্টারে বিকাল তিনটা হতে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন  করা হয়। মিশনের কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান ফারহানা আহমেদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানটি শুরুহয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালনের মাধ্যমে। এর পরে কাউন্সেলর (রাজনৈতিক) মিয়া মোঃ মাইনুল কবির, কাউন্সেলর (পাসপোর্ট ও ভিসা) মোঃ সাখাওয়াৎ হোসেন, প্রথম সচিব (বাণিজ্য) মোঃ শাকিল মাহমুদ এবং প্রথম সচিব (কন্স্যুলার) অপর্ণা রাণী পাল এ দিবস উপলক্ষে যথাক্রমে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন।

হাই কমিশনার মিজানুর রহমান  তাঁর স্বাগত বক্তব্যের শুরুতে সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যাঁর অবিচল ও দৃঢ় নেতৃত্বে বাংলাদেশের মুক্তিপাগল জনগণ ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলো।

 তিনি ৫২’র ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ’৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধের শাহাদাৎ বরণকারী লাখো বীর শহীদ এবং ’৭৫ এর কালোরাতে শাহাদাৎ বরণকারী জাতির জনকের পরিবারের সদস্যবৃন্দের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনায় জাতির পিতা শেখ মুজিবুর  রহমান এর সোনার বাংলা গঠনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০২১ সাল নাগাদ বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত দেশে উন্নীত করতে বর্তমান সরকারের সফলতা এবং উদ্যেগের বিষয়ে আলোকপাত করেন। পাশাপাশি অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনের বিভিন্ন কর্মকান্ড যথা টরেন্টোতে কন্স্যুলেট কার্যক্রমের উদ্বোধন, কানাডার আলবার্টা, সাসকাচুয়ান, বৃটিশ কলাম্বিয়া, ম্যানিটোবাসহ বিভিন্ন প্রদেশে কন্স্যুলার সেবা প্রদান এবং এ সকল প্রদেশের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক উন্নয়নের উদ্যোগের কথা উল্লেখ করেন। কানাডায় বাংলাদেশ হতে মানবসম্পদ রপ্তানী, নার্সিংসহ কারিগরী সহযোগিতা বৃদ্ধি, ব্যবসা বাণিজ্য সম্পর্কের সম্প্রসারণ ইত্যাদি প্রচেষ্টার কথাও তিনি উল্লেখ করেন। মান্যবর হাইকমিশনার বাংলাদেশ কানাডার ক্রম বিকাশমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিভিন্ন দিক বিশেষত রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বর্তমান কানাডা সরকারের সহযোগিতার বিষয়ে আলোকপাত করেন। তিনি কানাডায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের দেশ গঠনে অধিকতর অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান। মান্যবর হাই কমিশনার তাঁর স্বাগত বক্তব্যের শুরুতে সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

পরবর্তীতে, স্থানীয় শিল্পীসহ হাইকমিশনের কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারের সদস্যগণ এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন। সাংস্কৃতিক পর্বে হাইকমিশনের কাউন্সেলর (পাসপোর্ট ও ভিসা) মোঃ সাখাওয়াৎ হোসেন, কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান ফারহানা আহমেদ চৌধুরী, নাদিরা হক, ফারাহ নাজ, ডালিয়া ইয়াসমিন, অং সুয়ে থোয়াই, নার্গিস আখতার রুবি, ইকবাল গিয়াস সোহেল, শিউলী হক, আফরোজা লিপি, সাদি রোজারিও, হিমাদ্রি শেখর, কারিনা কর্মকার, আরেফিন কবির এবং শিশু শিল্পি মাসরুর মাহিন কবির, ওয়াজিদ, আমানি, প্রিতিকা ও ইয়ুশ্রা সংগীত, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশন করেন। স্থানীয় নাগরিকসহ প্রবাসী বাংলাদেশীগণ অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। পরিশেষে, উপস্থিত সকলের জন্য নৈশভোজের আয়োজন করা হয়।বিজ্ঞপ্তি।

 

 


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান