কবি জিন্নাহ চৌধুরীর ‘মোহে নয়, মুগ্ধতায় আছি’ গ্রন্থ‌ের প্রকাশনা উৎসব

Thu, Dec 13, 2018 9:59 PM

কবি জিন্নাহ চৌধুরীর ‘মোহে নয়, মুগ্ধতায় আছি’ গ্রন্থ‌ের প্রকাশনা উৎসব

আর‌িফ রায়হান: কবি জিন্নাহ চৌধুরীর কাব্যগ্রন্থ ‘মোহে নয়, মুগ্ধতায় আছি -এর প্রকাশনা উৎসবে বক্তারা বলেছেন, সাহিত্যের প্রাণ হচ্ছে কবিতা। প্রত্যেক দেশে এবং প্রত্যেক ভাষাতেই সাহিত্যের পালা বদল ঘটে কবিদের হাত দিয়েই। কবিতায় খুব সাবলীলভাবেই ফুটে ওঠে কবির কল্পনা, যাপিতজীবন, সময়, দেশ ও ব্যক্তিক অনুভূতি। বাংলাদেশ কবিতার দেশ। কবির শেষ। বাংলাদেশ থেকে কবিতা কখনই যে ফুরোবে না- নিঃশেষ হবে না, তার প্রমাণ আজকের এই রোবট সময়েও কবিতাচর্চায় বিপুল সংখ্যক লেখকের আগমন। জিন্নাহ চৌধুরী সেই ধারার প্রতিনিধি।

১৩ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম একাডেমির ফয়েজ নুরনাহার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম কিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ড. শিরীণ আখতার। কবি ও সাহিত্যিক রাশেদ রউফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচনা করেন সাহিত্যিক শিক্ষাবিদ ড. আনোয়ারা আলম ও কবি শিক্ষাবিদ হোসাইন কবির। আবৃত্তিশিল্পী আয়েশা হক শিমুর সঞ্চালনায় আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী মিলি চৌধুরী, লুবাবা ফেরদৌসী সায়কা ও জেবুন নাহার শারমিন।

প্রধান অতিথি ড. শিরীণ আখতার বলেন, জিন্নাহ চৌধুরীর কবিতায় প্রেমের অনুষঙ্গ যেভাবে ¯স্থান পেয়েছে, তেমনি দেশ কাল ও মানুষের বৈচিত্র্যপূর্ণ জীবনও সমান মর্যাদায় জায়গা করে নিয়েছে। কাব্যচর্চার মধ্য দিয়ে তিনি সাহিত্যের সেবা করে যাচ্ছেন।

ড. আনোয়ারা আলম বলেন, জিন্নাহ চৌধুরীর কবিতায় আছে প্রকৃতি, প্রেম, সমাজ, সমসাময়িক বিষয় এবং মধ্যবিত্তের দোলাচল বৃত্তি সাথে যুক্ত হয়েছে ব্যক্তি স্বাতন্ত্রবাদ--একই সাথে দার্শনিকতা ও নৈব্যক্তিকতা। কবিতাগুলো পড়লে পাঠকের মনের মুকুরে বেজে ওঠে ভালোবাসার দহনে কাব্যের সুরেলা শঙ্খধ্বনি। কবি স্বপ্ন দেখেন কল্পনায় ও ভাবনায় বুদ হন। অবগাহন ও নিমজ্জন শেষে প্রজ্ঞার প্রকাশ ঘটান এবং শিল্পীর দক্ষতায় আপন নির্মাণে ভাস্বর হয়ে ওঠেন।

অধ্যাপক হোসাইন কবির বলেন, কবি জিন্নাহ চৌধুরীর ব্যক্তিগত অভিজ্ঞান, উপলব্ধি আমাদের অনেকের সাথে মিলে যায়। যাঁরা আমরা গ্রাম বাংলার আলপথে শীষ দিয়ে বাজাতাম পাতার সাঁনাই আবার নিয়ন বাতির আলোকোজ্জ্বল শহরের অলিতে গলিতে ঘুরছি ফিরছি গ্রাম বাংলার স্মৃতি নিয়ে ভারবাহী এক মানব সন্তান। আমাদের আজ অনেক স্মৃতি বাদ পড়ে যােছ লাল মার্জিনের সীমারেখায়। সেই আকুতি কবি জিন্নাহ চৌধুরীর কবিতায় বার বার ঘুরে ফিরে আসে।

প্রধান অতিথি ও আলোচক ও উপস্থিত সুধীজনদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে অনুভূতি প্রকাশ করে কবি জিন্নাহ চৌধুরী বলেন, আমি আনন্দিত, আমি অভিভূত। তাঁরা আমার লেখার নানা দিক তুলে ধরে আমাকে কৃতার্থ করেছেন এবং আমাকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা দিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, আমি লিখি মনের তাড়নায়, চেষ্টা করি কবিতার মাধ্যমে আমাদের দৈনন্দিন জীবনের নানা সঙ্গতি ও অসঙ্গতিগুলো তুলে ধরার।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান