টরন্টোয় 'রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব'

Sat, Nov 3, 2018 6:36 PM

টরন্টোয়  'রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব'

নতুনদেশ ডটকম: রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী সংস্থা, কানাডার 'রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব' হয়ে গেল ২৭ অক্টোবর, শনিবার সন্ধ্যায়, টরন্টোর বাংলাদেশ কানাডা হিন্দু মন্দির মিলনায়তনে। 

সংগঠনের সভাপতি শাহজাহান কামালের সূচনা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। চার পর্বে বিভক্ত এ আয়োজনের প্রথম পর্বে পাঁচটি সম্মেলক সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। সম্মেলক গানগুলো ছিল - জয় তব বিচিত্র আনন্দ, সুরের গুরু দাওগো সুরের দীক্ষা, যিনি সকল কাজের কাজী, প্রাণ ভরিয়ে তৃষা হরিয়ে ও আকাশ জুড়ে শুনিনু ওই বাজে। 

দ্বিতীয় পর্ব - গুণীজন সম্মাননায় এবারে স্মরণ করা হয় বাংলাদেশের উচ্চাঙ্গ সংগীতের পথিকৃৎ ব্যক্তিত্ব প্রয়াত ওস্তাদ মুন্সী রইসউদ্দিনকে। তাঁর সম্পর্কে স্মৃতিকথায় অংশ নেন তাঁর দুই পুত্র - জনাব আলিমুজ্জামান ও আশিকুজ্জামান টুলু। মুন্সী রইসউদ্দিনের কর্ম ও জীবনের উপর পাঠ করে শোনান এ পর্বের সঞ্চালক সাবরিনা হাসান।

নাদিরা ওমরের সঞ্চালনায় "যুক্ত করো হে সবার সঙ্গে মুক্ত করো হে বন্ধ" শিরোনামে আলোচনা ছিল তৃতীয় পর্বে। এতে আলোচক ছিলেন ডঃ মাহমুদুল আনাম ও ফারহানা আজিম শিউলী। বক্তাদ্বয় বর্তমানে পৃথিবীজুড়ে বিদ্যমান সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার প্রেক্ষাপটে, রবীন্দ্রনাথের সমকালীনতা ও প্রাসঙ্গিকতার আলোকে শিরোনামের বিষয়বস্তু আলোচনা করেন। 

চতুর্থ ও সবশেষ পর্বে সংস্থার সদস্যরা বিভিন্ন পর্যায়ের একক রবীন্দ্রসঙ্গীত পরিবেশন করেন ও দু'জন অতিথি শিল্পী - শেখর গোমেজ ও রাশিদা মুনীর রবীন্দ্রনাথের কবিতা আবৃত্তি করেন। সম্মেলক ও একক গানে অংশ নেন - ইখতিয়ার ওমর, শাহজাহান কামাল, নাদিরা ওমর, চিত্রা সরকার, জীবিনা সঞ্চিতা হক, হাবিব উদ্দিন, নবিউল হক বাবলু, নিঘাত মর্তুজা শর্মী, নাহিদ কবির কাকলি, কুমকুম বল, সুভাষ দাশ, মঞ্জুর আহমেদ, রুমা হক, পারভিন হোসেন, মুক্তি প্রসাদ ও ফারহানা আজিম শিউলী ও শিখা আখতারি আহমাদ। একক গানগুলো ছিল - পথে চলে যেতে যেতে কোথা, ওগো তুমি পঞ্চদশী, একি এ সুন্দর শোভা, দুয়ার মোর পথপাশে, ওগো তোমার চক্ষু দিয়ে, আজি নাহি নাহি নিদ্রা আঁখিপাতে, মন মোর মেঘের সঙ্গী, দিবস রজনী আমি যেন কার, বঁধু কোন আলো লাগল চোখে, এখনো ঘোর ভাঙে না তোর যে, রাত্রি এসে যেথায় মেশে, সুনীল সাগরের শ্যামল কিনারে, হৃদয়ের একূল ওকূল দুকূল ভেসে যায়, ও যে মানে না মানা, দেখো দেখো শুকতারা, আমি রূপে তোমায় ভোলাবো না ও আমি তোমারই মাটির কন্যা। 

অনুষ্ঠানটি শেষ হয় সংগঠনের সাধারন সম্পাদক নবিউল হক বাবলুর ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে। তার আগে অতিথি শিল্পী ও যন্ত্রসঙ্গতকারীদের শিশুদের হাত দিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে তবলা সঙ্গত করেন দোলন সিনহা। মন্দিরায় ছিলেন অলোক মুখার্জী। 

অনুষ্ঠানে আগত দর্শক-শ্রোতাদের প্রতি রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী সংস্থা, কানাডা আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান