স্কারবোরো সাউথ্ওয়েষ্টঃ গ্যারি-মিশেলের লড়াই নিয়েই আগ্রহ

Sat, Sep 22, 2018 1:21 AM

স্কারবোরো সাউথ্ওয়েষ্টঃ গ্যারি-মিশেলের লড়াই নিয়েই আগ্রহ

নতুনদেশ ডটকম: আসন্ন সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে স্কারবোরো সাউথওয়েষ্টে (ওয়ার্ড ২০) পরষ্পরের মুখোমুখি হচ্ছেন বর্তমানে দায়িত্বে থাকা দুই কাউন্সিলর। টরন্টো সিটিতে জন টরির বাজেট প্রধান গ্যারি  ক্রফোর্ড আর মিশেল হল্যান্ড বারারডিনেটি এবারও ভোটযুদ্ধে নেমেছেন। এই আসনে দুই  হেভিওয়েট প্রার্থীর ভোটের লড়াই  এলাকায় ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে।

প্রসঙ্গত,  গ্যারি ক্রফোর্ড ৩৬ এবং মিশল হল্যান্ড ৪৫ নম্বর ্ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর।  ডাগফোর্ডের আসন সংকোচনের পর ওয়ার্ড ৩৫ ও ৩৬ মিলিয়ে সৃষ্টি হয়েছে ২০ নম্বর ওয়ার্ডের । দুইজনই এই আসনে পরষ্পরের প্রতিদ্বন্ধি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

গ্যারি এবং মিশেল দুজনেই বলেছেন, এই নির্বাচনে তারা ‘পজিটিভ ক্যাম্পেইন’কে গুরুত্ব দিচ্ছেন। দীর্ঘদিন সিটি কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালনের ফলে দজনে ঝুড়িতেই জমা হয়েছে এলাকায় কল্যানমূলক কাজ করার সাফল্যের ফিরিস্তি। সেগুলোকেই প্রচারনায় মুখ্য করে তুলতে চান তারা।

মেট্টোল্যান্ড মিডিয়া টরন্টো।কে দেয়া সাক্ষাতকারে গ্যারি বলেন, সিটির বাজেট প্রধান হিসেবে এবং সিটি কাউন্সিলর হিসেবে তিনি টরন্টো সিটি কাউন্সিলে  নেতৃত্ব দিয়েছেন। কমিউনিটির জন্য্ও তিনি কাজ করে গেছেন। তিনি বলেন,  এতোদিন আমি যা করেছি, এখনো সেটিই অব্যাহত রাখবো।  

গ্যারি ক্রফোর্ড  বলেন, নিরাপত্তাকে তার এলাকার জন্য একটি বড় ইস্যূ হিসেবে দেখছেন তিনি। বন্দুকের ব্যবহার নিয়ে তিনি উদ্বিগ্ন। এর বিরুদ্ধে তিনি সোচ্চার হবেন। কমিউনিটির শক্তিশালী কণ্ঠস্বর হিসেবে তিনি ভূমিকা রাখতে চান।

গ্যারি এবং মিশেল দুজনেই বলছেন, সিটি কাউন্সিলর হিসেবে নিজ নিজ এলাকায় তার কাজ করেছেন্ ।স্কারবোরোর দক্ষিণ এলাকায় গ্যারি এবং উত্তরে মিশেল ভালোভাবেই পরিচিত। দুজনেই স্বীকার করেছেন, নতুন এলাকায় ভোটারদের কাছে পৌঁছা তাদের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ। কারন ওই এলাকাগুলোর ভোটাররা তাদের কাছে নতুন।

মিশেল হল্যান্ড  বলেন, ‘সিদ্ধান্তহীন ভোটাররাই আসলে এই ওয়ার্ডের ভোটের ফলাফলের প্রধান নিয়ামক হয়ে ওঠবেন। আমরা যে এলাকায় কাজ করেছি, সেই এলাকার ভোটাররা ভোটের ব্যাপারে তাদের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। গ্যারির এলাকায় সে ভালো কাজ করেছে। সেখানে তার সমর্থক আছে। আমার এলাকায় আমি ভালো কাজ করেছি। সেখানে আমার সমর্থক আছে। তিনি বলেন, আসলে ৪০ শতাংশ ভোটার এখনো সিদ্ধান্তহীন এবং এদের সিদ্ধান্তটাই এই নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান