ড্রিমলাইনার বোয়িং ৭৮৭: চাই মানসম্পন্ন পরিচালনা

Sun, Sep 9, 2018 9:16 PM

ড্রিমলাইনার বোয়িং ৭৮৭: চাই মানসম্পন্ন পরিচালনা

কামাল উদ্দিন সরকার : বাংলাদেশ বিমানের বহরে যুক্ত হল স্বপ্নের উড়োজাহাজ বোয়িং ৭৮৭। অত্যাধুনিক এই ফ্লাইটের সংযুক্তির সংবাদ আমাদের জন্য খুবই আনন্দের। ১ সেপ্টেম্বর ড্রিমলাইনারের প্রথম ফ্লাইট উদ্বোধনের পর প্রাথমিকভাবে ঢাকা-সিঙ্গাপুর ও ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে ফ্লাইট পরিচালিত হচ্ছে।

৭৮৭ ড্রিমলাইনার বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সংবলিত উড়োজাহাজ বলে জানিয়েছে বিমান কর্তৃপক্ষ। আকাশবীণা নামের এই ফ্লাইটে আসনসংখ্যা থাকছে ২৭১ টি । এর মধ্যে বিজনেস ক্লাস ২৪টি এবং ইকোনোমি ক্লাস ২৪৭টি । বিজনেস ক্লাসে ২৪টি আসন ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত রিক্লাইন্ড সুবিধা এবং সম্পূর্ণ ফ্ল্যাটবেড হওয়ায় যাত্রীরা আরামদায়ক ভ্রমণ করতে পারবেন। বিমানটিতে যাত্রীরা ইন্টারনেট ও ফোন কল করার সুবিধা পাবেন। এর ঘন্টায় গতিবেগ ৯৫৪ কিঃমিঃ। বাংলাদেশ বিমানে এত উচ্চ গতিসম্পন্ন জাহাজ এর আগে যুক্ত হয়নি। একবার উড্ডয়নের পর বিরতিহীনভাবে ফ্লাইটি ১৪,৮০০ কিঃমিঃ উড়তে পারবে। খুব তাড়াতাড়ি বিমানে আরো তিনটি বোয়িং ৭৮৭ যুক্ত হবে। আমরা বাংলাদেশ বিমানের নতুন বহরের নিরাপদ সুদীর্ঘ পথযাত্রা কামনা করছি।

স্বাধীনতা পরবর্তী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কোন খবরই সুখকর নয়। অনেক বড় বড় মন্ত্রী ও কমিটি বিমানের দূর্দশা লাঘবে পুরুপুরি ব্যর্থ হয়েছেন। দুর্নীতি ও অধিক ব্যয়ের কারণে প্রতিবছর কোটি কোটি টাকার লোকসান দেশের অর্থনীতিকে পঙ্গু করে দিয়েছে। ২০০৭ সাল থেকে বিমানকে লিমিটেড কোম্পানি করার পরও ২০১৪ সাল অবধি এর ক্ষতির শেষ ছিল না। অবশ্য গত তিন বছর যাবৎ বিমান নতুনভাবে আশার আলো জাগিয়েছে। বিমান ২০১৪-'১৫ সালে ৩.২৪ বিলিয়ন, ২০১৫-'১৬ সালে ২.৩৫ বিলিয়ন এবং ২০১৬-'১৭ সালে ০.৪৭ বিলিয়ন টাকা আয় করেছে যেখানে প্রতিবছর আবার আয়ের পরিমান কমছে।

প্রয়োজনের তুলনায় বিমানের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সংখ্যা এতো বেশি যে মাত্র ১০ টি ফ্লাইট উড়িয়ে এদের খরচ বহন করা অনেকটা অসম্ভব। বিশ্বের অন্যান্য উড়োজাহাজ পরিচালনাকারী সংস্থাকে অনুসরণ করলে দক্ষ অথচ কম সংখ্যক স্টাফ নিয়ে বিমান অন্যতম মুনাফা অর্জনকারী সংস্থায় পরিণত হতে পারে। সময়মত বিমানের উড্ডয়ন ও অবতরণ, রক্ষণাবেক্ষণ, অনলাইন ও ট্রাভেল এজেন্টদের মাধ্যমে সৎ উপায়ে টিকেট বিক্রয়ের সুবিধা এবং যাত্রীসেবার মান উন্নত করলে বদনাম ঘুচিয়ে বাংলাদেশ বিমানকেও বিশ্বমানের করা সম্ভব। সেক্ষেত্রে বোয়িং ৭৮৭ ফ্লাইটগুলোকে নিকটবর্তী দেশগুলোতে পরিচালনা না করে অধিক দূরত্বে ইউরোপ ও আমেরিকায় পরিচালনা করতে পারলে নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ অধিক  মুনাফা  করবে।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান