আঙুলে হাওয়াইন গিটারের তারে সুর

Sat, Jul 21, 2018 6:45 PM

আঙুলে হাওয়াইন গিটারের তারে সুর

কবির বকুল: এনামুল কবির। ৭৩ বছর বয়স হলেও আঙুলে হাওয়াইন গিটারের তারে সুর বুনছেন এখনো। যদিও প্রথম সখ্য বাঁশির সঙ্গে, কিন্তু একটা সময় হাওয়াইন গিটারই হয়ে যায় তাঁর প্রিয় যন্ত্র।

আমার জন্ম নড়াইল জেলার নড়াগাতী থানার ডুমুরিয়া গ্রামে। জ্ঞান হওয়ার পর থেকেই বাড়িতে কলের গান বাজতে শুনেছি। ছোটবেলা থেকেই গানের প্রতি বিশেষ আকর্ষণ তৈরি হয়ে যায়। বাবার সরকারি চাকরির কারণে চলে যেতে হয় কলকাতায়। ১৯৫০ সালে আবার নড়াইলে ফিরে আসি। আমার চাচা খুব ভালো বাঁশি বাজাতেন। বাঁশিটা মনে ধরে। তাই চাচাকে ধরি আমাকে শেখানোর জন্য। তাঁর কাছে বাঁশিতে হাতেখড়িকিন্তু কপাল মন্দ। বাঁশিটা বেশি দিন বাজাতে পারিনি। কারণ, ওই সময় বাতজ্বরে আক্রান্ত হই। ডাক্তার বারণ করেন বাঁশি বাজাতে। সুস্থ হয়ে উঠলেও মনটা খারাপ থাকত বাঁশি না বাজাতে পারার কারণে

যেহেতু সংগীতের প্রতি দুর্বলতা আছে, তাই একসময় গিটারের দিকে ঝুঁকে পড়ি। একা একাই বাজানোর চেষ্টা করি। পড়ালেখার কারণে ঢাকায় আসি ১৯৬০ সালে। গিটারটা ভালো করে শেখার ইচ্ছে নিয়েই ওই বছর ভর্তি হই বুলবুল ললিতকলা একাডেমিতে। ছয় মাস সেখানে শেখার পর নিজেই বাজাতে শুরু করি।

১৯৬৪ সালে তৎকালীন বেতারে হাওয়াইন গিটারশিল্পী হিসেবে তালিকাভুক্ত হই। টেলিভিশনে প্রথম সুযোগ পাই ১৯৬৯ সালে। চলচ্চিত্রে যন্ত্রশিল্পী হিসেবে প্রথম সুযোগ পাই রাজ্জাক পরিচালিত অনন্ত প্রেম ছবিতে। অনেকগুলো ছবিতে আমি বাজিয়েছি। একসময় গিটারে যন্ত্রসংগীতের অ্যালবাম করার ইচ্ছে হয়। ১৯৮১ সালে আমার বাজানো হাওয়াইন গিটারে হারানো দিনের গান শিরোনামে অ্যালবাম বের হয়। এরপর ১৯৮৪ সালে গিটারে মুক্তিযুদ্ধের গান। অ্যালবামটির সঙ্গে গানগুলোর স্বরলিপির একটি বইও বের হয়। একটু বলে রাখি, গিটারে বাজানো এই অ্যালবামের মুক্তিযুদ্ধের গানগুলো এখন নিয়মিত বাজছে সংসদ টেলিভিশনে।

আমার করা এ পর্যন্ত হাওয়াইন গিটারের ৪২টি অ্যালবাম এবং গিটারে স্বরলিপির বই বেরিয়েছে ১৬টি। দেশাত্মবোধক গান, লোক গান, পুরোনো দিনের গান, হিন্দি ও উর্দু—সব মিলিয়ে ৫০০ গান বাজিয়েছি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য গিটারে মাহমুদুন নবীর গাওয়া নির্বাচিত গান নিয়ে অ্যালবাম তুমি যে আমার কবিতা, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের গাওয়া নির্বাচিত গানের অ্যালবাম এ শুধু গানের দিন।

২০০৮ সালে মান্না দে সংগীত একাডেমির উদ্যোগে আয়োজিত মান্না দের ৯০তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাওয়া আমার জন্য স্মরণীয় একটি মুহূর্ত। তাঁর গাওয়া নির্বাচিত কিছু গান নিয়ে হয়তো তোমারই জন্য নামে একটি অ্যালবাম করেছিলাম।

২০১৪ সালে আমার সুর করা গানের একটি অ্যালবাম বের হয়। আমার সুরে অ্যালবামে গান গেয়েছিলেন হৈমন্তী শুক্লা, সুবীর নন্দী, সুজিত মোস্তফা, মুর্শিদ জাহান এবং এই প্রজন্মের কয়েকজন শিল্পী। অ্যালবামে কবি নির্মলেন্দু গুণের লেখা ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ গানটি আমি নিজেই গেয়েছি।

শুধু গিটারে গান বাজানোই আমার শেষ নয়। আমি নিজে যা শিখেছি, তা ছড়িয়ে দেওয়ার ইচ্ছেতেই ছাত্রছাত্রীদের শেখানো শুরু করি। এক হাজারেরও বেশি ছাত্রছাত্রীকে আমি হাওয়াইন গিটার শিখিয়েছি। এ পর্যন্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ১৮টি সম্মাননা দেওয়া হয়েছে আমাকে। তবে বিশেষভাবে মনে পড়ছে ১৯৮৮ সালে ওস্তাদ আলী আকবর খান ও ওস্তাদ ফুল মোহাম্মদ খানের সঙ্গে আমাকেও সংবর্ধনা দেয় সিলেট যন্ত্রশিল্পী সংস্থা।

  • লেখাটি ২০১৬ সালে প্রথম আলোয় প্রকাশিত হয়েছিলো।

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান