বিসিসিবি ‘সার্কেল অব কেয়ার’ এর ১ জুলাই’র  ব্যতিক্রমী আয়োজন

Fri, Jun 29, 2018 10:32 AM

বিসিসিবি ‘সার্কেল  অব কেয়ার’ এর ১ জুলাই’র  ব্যতিক্রমী আয়োজন

বি জামান মুকুল: স্টিগমা যেমন আমাদের দেশে, সমাজে আছে তেমনি এই দেশেও আছে। এখানে যদিও চেষ্টা করা হচ্ছে এটাকে ঝেড়ে ফেলার, আমাদের সমাজে এই চেষ্টাটির গতি দুঃখজনক হলেও খুব শ্লথ। আমি মানসিক স্বাস্থ বিষয়ে দীর্ঘদিন কাজের অভিজ্ঞতায় যেটা দেখেছি, তা হলো এই ধরণের চ্যালেঞ্জ থেকে এর প্রতি আমাদের সমাজের মানুষের স্টিগমা সব থেকে ক্ষতির কারণ, এবং এই স্টিগমার কারণে আমরা উপযুক্ত চিকিৎসা বা করণীয় কাজ থেকে বিরত থাকি। আর যেহেতু আমরা স্টিগমার কারণে reach out করতে চাইনা, তাই মনে করি এই চ্যালেঞ্জ বা সমস্যা শুধু আমার বা আমার বাচ্চার, অথচ এটি একেবারে অসত্য। আপনি কখনো একা নন, আপনার মতো অনেকেই এবং অনেক পরিবারিই আছেন, কিন্তু আমরা সমাজের কিছু জাজমেন্টালl লোকের কারণে নিজেদেরকে গুটিয়ে রাখি তাই একে ওপরের সাথে যোগাযোগ করতে পারি না, অথচ এটিই হলো সব থেকে বেশি প্রয়োজন।

যাহোক আমার এ লেখার উদ্দেশ হলো টোরোন্টোস্থ বিসিসিবির  ‘সার্কেল অব কেয়ার’ এর উদ্যোগে আগামী ১ জুলাই কানাডা ডেতে একটি গেট টুগেদারকে নিয়ে। আমার সৌভাগ্য হয়েছিল গতবারের আয়োজনে যোগদানের। আমি ইতিপূর্বে সে বেপারে লিখেছি। আমার খুব ভালো লেগেছিলো স্পেশাল নীডস কিডসদের সাথে এবং তাদের পরিবারের সাথে মিলিত হয়ে। আমার ভাগ্নিকে নিয়ে গিয়েছিলাম (ও স্পেশাল নিডস কিড)  শুধু আমি নই, অনেক পরিবারই উৎসাহিত হয়েছিল। বিশেষভাবে ওয়ারিস ভাইয়ের ছেলে ছালমানের পথচলা এবং তার চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করে সাফল্যে পৌঁছানোর গল্প শুধু আমাকে নয় অনেক মানুষকেই অনুপ্রাণিত করেছে। ওখানে না গেলে আমি এগুলি কখনো জানতে পারতাম না; না কোনো বইতে, না কোনো চিকৎসক বা থেরাপিস্টের কাছ থেকে, কারণ ওই তথ্যগুলি ছিল একেবারে জীবন থেকে নেওয়া। এছাড়া আরো অনেক ফ্যামিলির সাথেও পরিচয় হয়েছে, যাদের থেকে আরো অনেক কিছু জেনেছি এবং সেগুলি কাজে লাগছে।

যাহোক আমি কথা না বাড়িয়ে আপনাদের সবাইকে আবেদন  জানাচ্ছি,আসছে ১লা জুলাই  কানাডা ডেতে ক্রিসেন্ট টাউন ক্লাবে  দুপুর ১ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলবে। আপনি নাম মাত্র মূল্যে টিকেট সংগ্রহ করে চলে আসুন আপনার ছেলেমেয়ে, পরিবার ওর বন্ধুবান্ধবসহ। আমি নিশ্চিত আপনি নিরাশ হবেন না।

 আমাদের শুধু আমাদের নিজেদের এন্টারটেইনিং এর কথা ভাবলে হবে না, মাঝে মাঝে নিজেদেরকে কিড হয়ে তাদেরকে কিছুটা ডিসেন্ট সময় দিতে হবে। আমি গতবার অবাক হয়ে গিয়েছিলাম অনেক পরিবার দূরদূরান্ত থেকে এসেছিলেন, যদিও আমার ২/১ টি প্রতিবেশীকে দেখি নি। আবেগ তাড়িত হয়ে মায়া কান্না আমাদের থাকবেই, কিন্তু প্রাকটিক্যাল কাজতো করতে হবে, তাই আসুন এখানে আসি, একে ওপরের সাথে পরিচিত হয়, তথ্য আদান প্রদান করি এবং আমাদের স্পেশাল নিডস বাচ্চাদেরকে একটি সুন্দর সমাজ উপহার দেই।

আরো তথ্য


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান