৩০ জুনের মাল্টিকালচারাল ফিল্ম ফেষ্টিভ্যালের প্রস্তুতি সম্পন্ন

Sun, Jun 24, 2018 1:02 AM

৩০ জুনের মাল্টিকালচারাল ফিল্ম ফেষ্টিভ্যালের প্রস্তুতি সম্পন্ন

নতুনদেশ ডটকম:কানাডার মুলধারার দর্শকদের সামনে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে তুলে ধরার লক্ষ্য নিয়ে আয়োজিত দ্বিতীয় মাল্টিকালচারাল ফিল্ম ফেষ্টিভ্যাল, টরন্টোর প্রস্তুতি পূর্ণউদ্যমে চলছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের  ২৫টি ভাষায় নির্মিত ৪০টি চলচ্চিত্র নিয়ে সাজানো হয়েছে এই ফেস্টিভ্যাল। আয়োজকরা জানিয়েছেন, ছবি বাছাইয়ের কাজও তারা ইতিমধ্যে সেরে ফেলেছেন।

আগামী ৩০ জুন  সন্ধ্যা ৬টায় আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে কানাডার ২য় প্রাচীনতম মুভি থিয়েটার ‘ফক্স থিয়েটার’কে। ২২৩৬ কুইন স্ট্রিটের এই ফক্স থিয়েটারে উদ্বোধনী আনুষ্ঠানিকতার পর কানাডা এবং বাংলাদেশের দুটি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। ছবি দুটি হচ্ছে কানাডীয়ান চলচ্চিত্র পরিচালক  জোসলিন রজার্স এর দি চিকেন ম্যান এবং বাংলাদেশের মোরশেদুল ইসলামের ‘আঁখি এবং তার বন্ধুরা।

টরন্টো ফিল্ম ফোরাম  গত বছর থেকে মাল্টিকালচারাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল শুরু করে। এবার হচ্ছে দ্বিতীয় আয়োজন। এই আয়োজন সবার জন্য উন্মুক্ত।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, ১ ও ২ জুলাই সারাদিনব্যাপী চলচ্চিত্র প্রদর্শনী চলবে। তবে এই প্রদর্শনী হবে ২৬৭০ ডেনফোর্থ এভেনিউর বাংলাদেশ সেন্টার মিলনায়তন এবং  ৩০০০ ডেনফোর্থের মিজান কমপ্লেক্স অডিটরিয়ামে।ফেস্টিভ্যালের সমাপনীতে ২ জুলাই রাতে রয়েছে বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী রনি প্রেন্টিস রয় এর একক সঙ্গীত পরিবেশনা।  

 জানা গেছে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশ ও ভাষার চলচ্চিত্র নির্মাতারা অতিথি হিসেবে  উপস্থিত থাকবেন । এদের মধ্যে রয়েছেন  বাংলাদেশের বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা মোরশেদুল ইসলাম, শ্রীলঙ্কার প্রিয়াংকারা ভিতানাচ্চি, কানাডিয়ান চলচ্চিত্র নির্মাতা জসলিন রজার প্রমুখ। এই চলচিত্র উৎসবে বাংলা, ইংরেজি, ফরাসি, হিন্দি, উর্দু, স্প্যানিশ, তামিল, আরবি, পোলিস, ফারসি, রাশান, আইরিশ, চেক, তেলেগু, ইতালিয়ান, আফগানি, চেক, গ্রিক, চাইনিজ, জাপানি ও নেপালি ছবি প্রদর্শিত হবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।  

এ প্রসঙ্গে টরন্টো ফিল্ম ফোরামের সভাপতি এনায়েত করীম বাবুল নতুনদেশ ডটকমকে বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চলচ্চিত্রকে এক পর্দায় তুলে এনে দর্শকদের মধ্যে এক ধরনের সেদু বন্ধন তৈরির লক্ষ্য নিয়েই মাল্টিকালচারাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের যাত্র। সেই লক্ষ্য পূরণে আমরা যথেষ্ট উৎসাহব্যাঞ্জক সাড়া পাচ্ছি।  তিনি বলেন, প্রবাসে থাকা বাংলাদেশি কমিউনিটিছাড়াও অন্যান্য কমিউনিটির দর্শকরাও এই উৎসবের ব্যাপারে আগ্রহ দেখাচ্ছেন।

ফিল্ম ফোরামের সাধারন সম্পাদক মনিস রফিক ফেস্টিভ্যালে অংশ নিতে সবাইকে আমন্ত্রন জানান। তিনি জানান, এক বসায়  বিভিন্ন মেজাজ এবং রুচির চলচ্চিত্র দেখার অসাধারন এক সুযোগ এই ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান