এখন বাজেট দিলে  জিনিসপত্রের দাম বাড়ে না, কমে: টরন্টোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

Mon, Jun 11, 2018 2:17 AM

এখন বাজেট দিলে  জিনিসপত্রের দাম বাড়ে না, কমে: টরন্টোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

নতুনদেশ ডটকম: কানাডা সফররত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজ সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের বিবরন তুলে ধরে বলেছেন, বিএনপি জোটের শাসনামলে যেখানে মাত্র ১৯ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট হতো, এখন সেটি ১ লাখ ৭৩ হাজার কোটি টাকায় দাড়িয়েছে। এই বিশাল আয়তনের উন্নয়ন বাজেটের ৯০ শতাংশই নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়ন করা হবে।

তিনি বলেন, আগে বাজেট প্রণয়নের ক্ষেত্রে, উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়নের ক্ষেত্রে বিদেশি সহায়তার দিকে তাকিয়ে থাকতে হতো। বিদেশিদের সাহায্যের আশ্বাস না পেলে বাজেটই প্রণয়ন করা সম্ভব হতো না। এখন আর সেই পরিস্থিতি নেই।

রোববার সন্ধ্যায় টরন্টোর ডাউনটাউনে মেট্টোকনভেনশন সেন্টারে কানাডা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত এক গণসংবর্ধনায়  বক্তৃতাকালে তিনি এই কথা বলেন। কুইবেকে অনুষ্ঠিত জি-৭ সম্মেলনে অংশ নিতে কানাডার প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে তিনি কানাডা সফরে আসেন। জি-৭ সম্মেলন শেষে রোববারই তিনি কুইবেক থেকে টরন্টো আসেন।

জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করা নতুন বাজেটের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, অতীতে বাজেট দিলেই জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যেতো। এখন বাজেট দিলে আর জিনিসপত্রের দাম বাড়ে না, বরং কমে। তিনি বলেন, বাজেটে সাধারন জনগনের জন্য নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করা হয়েছে যাতে তারা জীবন যাপনে দুর্ভোগ না পোহান।

আওয়ামী লীগ আমলে বাংলাদেশর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, “দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, দেশের উন্নয়ন হচ্ছে বলেই জি সেভেন আউটরিচ সম্মেলনে বাংলাদেশকে দাওয়াত করেছে।”

এই উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের আবারও ক্ষমতায় থাকার গুরুত্ব  তুলে ধরেন তিনি।তিনি বলেন,“বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক ধারাটা আজকে শুরু হয়েছে। সর্বক্ষেত্রে যে উন্নয়ন হচ্ছে, গ্রাম পর্যন্ত যে উন্নয়ন হচ্ছে, এই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে।”

কানাডা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মাহমুদ মিয়ার সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল হক হানিফ, কানাডা আওয়ামী লীগের সেলিম ইরতাদ জুবেরি,আবদুস সালাম, মহিলা আওয়ামী লীগের হাসিনা আকতার জানু প্রমূখ বক্তৃতা করেন। কানাডা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আজিজুর রহমান প্রিন্স অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।  

প্রতিবেদনে ব্যবহৃত ছবিগুলো মুনির বাবুর সৌজন্যে প্রাপ্ত


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান