হাসিনার কানাডা সফর: ফেসবুকে মিন্টো- প্রিন্সের পাল্টাপাল্টি

Thu, May 17, 2018 7:35 PM

হাসিনার কানাডা সফর: ফেসবুকে মিন্টো- প্রিন্সের পাল্টাপাল্টি

নতুনদেশ ডটকম:  বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কানাডা সফর নিয়ে  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন দেশেবিদেশে সম্পাদক নজরুল মিন্টো এবং কানাডা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আজিজুর রহমান প্রিন্স।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক পোষ্টে দেশেবিদেশে সম্পাদক নজরুল মিন্টো অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কানাডা আসার সংবাদে স্থানীয় আওয়ামীলীগারদের লম্ফজম্ফে কমিউনিটির পরিবেশ বিপন্ন হতে চলেছে। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করিয়ে দিতে বাণিজ্য শুরু করেছে প্রতারণা কাজে অভিজ্ঞ আওয়ামী লীগ সম্পাদক আজিজুর রহমান প্রিন্স এবং ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা অন্টারিও আওয়ামীলীগের মোস্তফা কামাল।”

নজরুল ইসলাম মিন্টো স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে ফেসবুকে যে অভিযোগ তুলেছেন তা নিয়ে তাঁর সম্পাদিত ‘দেশেবিদেশে’ পত্রিকায় কোনো সংবাদ প্রকাশ করেননি। নিজের পত্রিকার বদলে অভিযোগটি তিনি ফেসবুকে পোষ্ট দিয়েছেন।

এদিকে আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুর রহমান প্রিন্স পাল্টা এক পোষ্টে দেশে বিদেশে সম্পাদক নজরুল মিন্টোকে নিজের বন্ধু দাবি করে লিখেছেন,’ আমার বন্ধু সে, কিন্তু নানা সময়ে ব্যক্তি আক্রোশ পত্রিকায় প্রকাশ করে নিন্দিত হয়েছেন, আদালতেও যেতে হয়েছে। আদালতে তার দোভাষির দায়িত্ব  পালন করতে হয়েছে আমাকে। টরোন্টোর বাংগালী সমাজে নানা দুষ্কর্মের ইন্দন দিয়ে যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন এই সম্পাদক সাহেব।”

নজরুল মিন্টো তার পোষ্টে লিখেছেন, “জানা যায়, তারা অতি উৎসাহীদের কাছে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দর্শনীর বিনিময়ে দেখা করিয়ে দেয়ার নানান অফার দিচ্ছে। বলা আবশ্যক নব্বই দশকে এ দুই ব্যক্তি বন্যার্তদের সাহায্যার্থে কয়েক লক্ষ ডলারের চাল উত্তোলন করে বাংলাদেশে নিয়ে বিক্রি করে দেয়। এ নিয়ে ঐ সময় কমিউনিটিতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। এছাড়াও এ দু'জনের বিরুদ্ধে রয়েছে অর্থ আত্মসাৎসহ নানান অভিযোগ। সাধু সাবধান!”

অপরদিকে আজিজুর রহমান প্রিন্স লিখেছেন, “আজ রমজান মোবারক। সংযমের এই মাসে সত্য বলার, আল্লাহর নৈকট্য হাসিলের এবাদত করে সব মোসলমান। অথচ রমজানের এই প্রথম সকালেই ঘুম থেকে উঠে একটি মিথ্যাচারের গল্প পড়তে হলে যা, লিখেছেন টরোন্টোর এক পরিচিত ব্যক্তি।‘

তিনি লিখেছেন,”যতদুর মনে পরে এই সম্পাদকের সংগে আমার সম্পর্ক সব সময়ই মধুর। পারিবারিকভাবেও পরিচিত আমরা। দেখা হলেই আমাকে উতসাহিত করেছেন বলেছেন অন্যদের অযোগ্যতার কথা। বিনয়ের সংগে শ্রবন করে তার চারিত্রিক স্বভাবটি লক্ষ্য করেছি। ইদানিং দূরে চলে যাওয়ায় দেখা সাক্ষাত খুব একটা হয়না তবে, সম্পর্কের অবনতি হয়েছে মনে হয়না।”

আজিজুর রহমান প্রিন্স লিখেছেন, আজ এই পবিত্র মাসের প্রথম দিনে আমার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ লিখে যা যা লিখেছেন তা মিথ্যাচার, অসত্য তবে তার চরিত্রের মজ্জাগত। এমন এক সময় লেখাটি ভাইরাল করেছেন যখন দলের সাধারন সম্পাদক হিসাবে প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফরের এবং নেত্রীকে সংবর্ধনার আয়োজনে ব্যস্ত আছি।”

 নজরুল মিন্টোর অভিযোগের জবাব দিয়ে তিনি লিখেছেন, যে রিলিফের চাল বিক্রির কথা উল্লেখ করেছেন তার বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্টের চ্যয়ারম্যনের স্বাক্ষরিত রিসিভ কপি রক্ষিত আছে এবং, একটি কপি এই সম্পাদককেও দেওয়া হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান সম্পন্ন করতে কি পরিমান অর্থ ব্যয় হয় তা এই ভদ্রলোক জানেননা অন্য কারনে। এই অর্থ দলের কর্মী, সমর্থক এবং শুভাকাংখিরাই যোগার করে, সেই চেষ্টাই চলছে তবে, ইনি জীবনে কোথায়ও কখনো চাদা দিয়েছেন তথ্য নেই। তিনি যাদের স্বার্থে বা যাদের অর্থে এই লেখা লিখে ভাইরলা করেছেন তাকে এবং তাদেরকে বলতে চাই, বংগবন্ধু প্রেমিক যারা নেত্রীর সফল অনুষ্ঠান করতে চায় তারাই চাঁদা দিয়ে অনুষ্ঠান করে, চাইতে হয়না। এমন লেখা লেখকের বা যাদের স্বার্থে লিখেছেন তাদের অন্তরতুষ্টি হতে পারে তবে, আমার দু:খটি অন্যখানে " একজন স্বাভাবিক মানুষ বিবেক বিবর্জিত হয়ে সামান্য কিছু বিনিময় প্রাপ্তির লোভে এমন হীন পথে নেমে যায় কি করে?"।


Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান