অন্টারিও নির্বাচন ভাবনাঃবাঙ্গালি/বাংলাদেশীদের অংশগ্রহন

Fri, May 11, 2018 11:49 PM

অন্টারিও নির্বাচন ভাবনাঃবাঙ্গালি/বাংলাদেশীদের অংশগ্রহন

রেজাউল ইসলাম: এখন অন্টারিওতে নির্বাচনের হাওয়া বইছে । দুই দিন আগে হয়ে গেল অন্টারিও প্রিমিয়ারদের মধ্যে বিতর্ক যুদ্ধ । বিতর্কে কে জয়ী হয়েছেন তা নিয়ে নানা রকম জরীপ চলছে । আমি শুধু ভাবার চেষ্টা করছি এমন বিতর্কে একজন বাঙালি/ বাংলাদেশী কি কোন দিন আসতে পারবেন ?

এবার অন্টারিওর বিভিন্ন নির্বাচনে বাংলাদেশীদের অংশগ্রহণ বেশ চোখে পড়ার মত । মেয়র পদে এক জন, এমপিপি পদে একজন আর কাউন্সিলর পদে চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন । তাদের সবাইকে অভিনন্দন এবং সাধুবাদ জানাই । তারা সাহস করে এগিয়ে এসেছেন এটাই আমাদের জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি । কথায় আছে না, হার জিতের চেয়ে অংশগ্রহনই হচ্ছে মুখ্য । একদিন এভাবে আমরাও জয়ী হয়ে আসবো । এই সব নির্বাচনে অংশগ্রহন পরিচিতির গণ্ডি বৃদ্ধি করে নিঃসন্দেহে তবে জয়ী হয়ে আসার জন্য থাকতে হবে সুদৃঢ় ভিত্তি । সেটি কি সবার আছে ? এখানে যারা বিভিন্ন পদে ইতিপূর্বে জয়ী হয়ে এসেছেন সেদিকে তাকালে অনেক গুলি বিষয় লক্ষণীয়ঃ

১) প্রত্যেকে তৃণমূল থেকে রাজনীতি করে এসেছেন

২) প্রত্যেকের আছে বিপুল জনসংযোগ

৩) রাইডিংয়ে সকল জনগোষ্ঠীর মধ্যে তাদের রয়েছে ব্যাপক গ্রহনযোগ্যতা। শুধুমাত্র একটি জাতির সংখ্যাধিক্যকে ভিত্তি করে জয়ী হয়ে এসেছেন এমন নজির নেই ।

৪) প্রত্যেকে কোন না কোন বড় দলের প্রার্থিতা বা সমর্থন পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন (দলভিত্তিক প্রার্থিতার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য)

৫) মেইন স্ট্রিম কালচার এবং মেইন স্ট্রিম জনগোষ্ঠীর সংগে রয়েছে তাদের বিপুল সংযোগ

৬) প্রত্যেকের রয়েছে কমিউনিটিতে কাজ করার দীর্ঘ ইতিহাস । কমিউনিটির বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করে ধাপে ধাপে বৃহত্তর পরিসরে উঠে আসার রয়েছে সংগ্রামী ইতিহাস ।

৭) প্রত্যেকের আছে সুনির্দিষ্ট ভিশন এবং মিশন ।দল ভিত্তিক প্রার্থিদের ক্ষেত্রে দলের ম্যানুফেস্টোর বাইরেও রাইডিংয়ের জন্য রয়েছে নিজস্ব পরিকল্পনা , কি করতে চান , কিভাবে করবেন , কিভাবে  ফান্ড মোবিলাইজ করবেন ইত্যাদি ।

উপরে যা যা উল্লেখ করলাম সেগুলি একজনকে জয়ী করার কিছু নিয়ামক শক্তি মাত্র । এর বাইরেও আরো নিয়ামক শক্তি থাকতে পারে, যেমন, তার বাগ্মিতা বা কথা বলার দক্ষতা এবং জনসাধারনকে কথার মাধ্যমে মুগ্ধ করার শক্তি,আকর্ষণ এবং কাছে টানার শক্তি। এই দেশের ভাষার উপর তার দক্ষতা। কানাডা একটি মাল্টিকালচারাল দেশ । এখানে বিভিন্ন জাতির বাস । মূল জাতি স্বত্বা ছাড়াও আছে বিভিন্ন জাতির সংমিশ্রণ ।আছে অভিবাসী। তাই একক কোন জাতির সহজ পরিসংখ্যান এটি নয়। প্রার্থিকে সকল জাতিকে জানতে হবে,বুঝতে হবে ।

উপরের যত গুলি শর্ত উল্লেখ করলাম তা অতীতে প্রার্থিদের জয়ী হয়ে আসার ইতিহাসের সঙ্গে জড়িত । এই শর্ত গুলির মধ্য দিয়ে না গিয়েই কেউ প্রার্থিতা পেয়ে ঘোষণা করে দিলেই কি সে জয়ী হতে পারবেন ? আমি শুধু একটি শব্দেই বলবো, 'অসম্ভব' । এটি তো এমন না যে , গাছে মই লাগানো আছে আর গাছের মগ ডালে উঠে গেলাম !! মইয়ের প্রতিটি ধাপ আপনাকেই তৈরি করতে হবে ।

কেউ জিতে আসার চিন্তা করলে তাকে এই সব কথা ভাবতে হবে । এমনি এমনি কেউ ভোট দিবে না । ভোট বাগিয়ে আনার সব শর্ত পূরণ করতে হবে । আর যারা রাইডিংয়ে প্রার্থি হয়েছেন তারা কি নিজ রাইডিংয়ের ডেমোগ্রাফিক ফেক্টোরগুলি নিয়ে কোন রিসার্চ করেছেন ? আপনার রাইডিংয়ে ভোটার কত , এই ভোটারদের মধ্যে কোন জাতি সংখ্যাধিক্য , এর পরে কোন জাতির অবস্থান , তারা কোন শ্রেণীর প্রতিনিধিত্ব করে , তাদের আয় কি , শ্রমজীবীদের অবস্থান কেমন , চাকুরীজীবী/পেশাজীবীদের অবস্থান , বয়স্করা কত অংশ জুড়ে আছে , যুব শ্রেণী যারা নতুন ভোটার হয়েছেন তাদের অবস্থানই বা কি ইত্যাদি জানতে হবে । তারা কি কারনে আপনাকে ভোট দিবে ? আপনি কি এমন করেছেন তাদের জন্য যে তারা ভোট দিবে ? সেই প্রশ্নের উত্তর গুলি পরিষ্কারভাবে জানতে হবে । আপনি যদি ভাবেন আমার রাইডিংয়ে বাঙালি/বাংলাদেশীদের উল্লেখযোগ্য একটা হার আছে তাই আমার জিতে আসা কোন ব্যাপার না , তাহলে আপনি বোকার স্বর্গে বাস করছেন !! বিষয়টি এত সহজ হিসাব নয় । বাঙ্গালি/ বাংলাদেশীদের জন্য দৃশ্যমান কাজগুলি করে দেখাতে হবে যাতে একবাক্যে কোন বাঙালি/ বাংলাদেশী বলতে পারেন , ইয়েস, উনি কমিউনিটির জন্য , এই এলাকার জন্য অনেক কিছু করেছে্, তাই তাকে ভোট দিবো ।

আমি স্কারবোরো সাউথওয়েস্টের একজন ভোটার । আমি বরাবর লিবারেলকেই ভোট দিয়ে থাকি । তবে এবার এমপিপি পদে এনডিপির প্রার্থি ডলি বেগমকে ভোট দিবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি । আমি মনে করি তিনি শুধু বাঙ্গালি/বাংলাদেশীই নন, তিনি একজন যোগ্য প্রার্থি । উপরে যত গুলি শর্ত উল্লেখ করেছি তিনি সব গুলি শর্ত পূরণ করেই ধাপে ধাপে নিজেকে যোগ্য হিসাবে গড়ে তুলেছেন। জয়ী হবার জন্য যে সব নিয়ামক দরকার তার সব গুলিই তাঁর মধ্যে দৃশ্যমান । তার প্রোফাইলটির ( https://www.linkedin.com/in/doly-begum-84941838 ) মধ্যে দিয়ে গেলে দেখা যায় তিনি বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সংগে যুক্ত । তিনি ওয়ার্ডেন উডস কমিউনিটি সেন্টারে কর্মরত অবস্থায় নানা রকম সেবামূলক এবং কমিউনিটির উন্নয়ন কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত । 'কিপ হাইড্রো পাবলিক' মুভমেন্টের সংগে দীর্ঘদিন রয়েছেন ।যুক্তরাজ্য কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশনের সিপিএ এবং ছাত্র ইউনিয়নের সঙ্গেও যুক্ত । এখানে দেখা যায় তিনি এক লাফে নয় , ধাপে ধাপে একটি বড় দলের নমিনেশন পাবার জন্য নিজেকে সম্পূর্ণ প্রস্তু করে এনেছেন এবং প্রার্থিতা পেয়েছেন ।শুধু বাঙালি/ বাংলাদেশী নয়, অন্যান্য জাতির মধ্যেও তাঁর গ্রহণযোগ্যতা লক্ষণীয়ভাবেই রয়েছে । তাই তাকে ভোট দেওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের কোন কার্পণ্য থাকা উচিত নয় । এপিপি পদে জয়ী হয়ে আগামীতে তিনি এমপি পদের জন্য প্রস্তুত হবেন । এভাবেই বাঙালিরা উঠে আসবে । তাঁকে আমাদের সার্বিক সমর্থন দেওয়া উচিত ।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান