দিকভ্রষ্ট নৌকার রাজনীতি এখন সাম্প্রদায়িক

Mon, Apr 9, 2018 11:54 PM

দিকভ্রষ্ট নৌকার রাজনীতি এখন সাম্প্রদায়িক

বেলাল বেগ: প্রথমে মাস্টার দা, পরে বিল্পবীদের আবির্ভাব এবং শেষে নেতাজীর উত্থান। এসব দেখে, বৃটিশ রাজ নিশ্চিত হয়েছিল ভারতবর্ষ থেকে তাদের পাততারি গুটাতেই হবে তবে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিল, কিছুতেই ভারতবাসীকে বিশ্বে মাথা তুলতে দেয়া হবে না।

 দুর্জনের ছলের অভাব হয়না; ভারতবাসীদের যে ধর্মান্ধতা কাজে লাগিয়ে বৃটিশ দখলদারেরা ১৯০ বছর রাজত্ব করেছে, সে একই বিষ দিয়ে ভারতবাসীকে নেশাগ্রস্ত ও অন্ধ রেখে ধর্মের ভিত্তিতেই ভারতবর্ষকে ত্রিখন্ডিত করে চলে গেছে বেনিয়ার জাত বৃটিশ। ধর্ম-আফিমের ঐ ঘোরে ঐতিহাসিক জাতি হিসাবে বাঙালিরা প্রথম যে রাজনৈতিক  দল বানিয়েছিল, তার নাম রেখেছিল আওয়ামি মুসলিম লীগ।

 মাত্র তিন বছরের মাথায় কেন তাদের মাথায় এল ‘মুসলিম’ শব্দটি বাদ দিতে হবে, তার ব্যখ্যা কি আওয়ামি লীগের কোন দলিলে আছে? থাকলে, তা জাতির জানা দরকার। দীর্ঘকাল ধরে, আমি ব্যক্তিগতভাবে দাবী করে চলেছি যে, চন্ডীদাসের ‘সবার উপরে মানুষ সত্য’ বানীটিই বাঙালি জাতীয়তাবাদের ভিত্তি। আওয়ামি লীগকে ধর্মের খোলস মুক্ত করার সময় কি কি দিক আলোচনা হয়েছিল, তা জানা গেলে, আমাদের জাতীয়তাবাদের একটা নিখুঁত সংজ্ঞা প্রতিষ্ঠা করা যেত এবং ধর্ম-ধাপ্পার অভিশাপ থেকে মানুষের কল্যাণের প্রতিষ্ঠান ‘রাজনীতি’কে চিরতরে মুক্ত করা যেত।

তারপর বংশপম্পরায় আমরা সাহসের সংগে বলে যেতে পারব, ‘ধর্ম অশিক্ষত’র শিক্ষা , শিক্ষাই শিক্ষিত লোকের ধর্ম। বাংলাদেশকে আবার সত্য, সুন্দর, মানবতার পথে ফিরিয়ে আনুক আওয়ামি অর্থাৎ সাধারণ মানুষের পার্টি আওয়ামি লীগ।,

লেখকের ফেসবুক পোষ্ট


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান