জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েন: সিইসি ও আওয়ামী লীগের দুই মত

Sun, Apr 8, 2018 3:00 PM

জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েন: সিইসি ও আওয়ামী লীগের দুই মত

নতুনদেশ ডটকম: প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা  আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের পক্ষে নিজের  মতামত দিয়েছেন। তবে তিনি বলেছেন,  এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার পুরো নির্বাচন কমিশনের ।

অপরদিকে আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের হাত নেই। বাস্তবতা বিচেনায় সরকারই এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবে। খবর বিডিনিউজ২৪.কম।

রোববার ঢাকায় এক আলোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম  নূরুল হুদা বলেন,   “আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েন হওয়া উচিত। বিগত জাতীয় নির্বাচনগুলোতে সেনা মোতোয়েন করা হয়েছিল।আমি ব্যক্তিগতভাবে একবারও বলিনি যে সেনা মোতায়েন হবে না। তবে এটা আমার একার সিদ্ধান্তের বিষয় নয়। ইসির আরো পাঁচজন সদস্য আছেন, তারা মিলেই এটা সিদ্ধান্ত নেবেন।”

সিইসি বলেন, তিনি জাতীয় নির্বাচনে সেনা চাইলেও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের পক্ষে নন। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা উচিত বলে আমি একদম মনে করি না।”

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পর রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে এক সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের বলেন, “নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব আর সরকারের দায়িত্বটা সংবিধান ঠিক করে রেখেছে। আমাদের সংবিধানে সব আছে। এখানে সংবিধান বহির্ভূত কিছু কারার সুযোগ নেই। নির্বাচনকালীন সময়ে নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব পালন করবে, তখন আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা নির্বাচন কমিশনের অধীনে চলে যাবে।

“কিন্তু সেনাবাহিনী প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকবে। সেনাবাহিনী কিন্তু নির্বাচন কমিশনের অধীনে যাবে না। নির্বাচন কমিশন যদি প্রয়োজন মনে করে, আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা নির্বাচনে দায়িত্ব পালনে যদি ব্যর্থ হয়, সে অবস্থায় নির্বাচন কমিশন সরকারকে অনুরোধ করতে পারে।”


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান