ভয়াবহ শূন্যতা অপেক্ষা করছে বাংলাদেশী কমিউনিটির শিল্প-সংস্কৃতির জগতে

Fri, Feb 16, 2018 10:20 AM

ভয়াবহ শূন্যতা অপেক্ষা করছে বাংলাদেশী কমিউনিটির শিল্প-সংস্কৃতির জগতে

জিন ইসলাম: ভয়াবহ এক শূন্যতা অপেক্ষা করছে টরন্টো শহরের বাংলাদেশী কমিউনিটির শিল্প- সংস্কৃতির জগতে। এই শহরের প্রতিভাবান এবং শ্রেষ্ঠ শিল্পীরা বর্তমান থাকাকালীন অবস্থায় উল্লেখযোগ্য তেমন কোনো নতুন প্রতিভা বা শিল্পীর আত্মপ্রকাশ ঘটেনি। এর পেছনে অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে। কাঠগড়ায় অনেককেই দাঁড় করানো যায়, একে অন্যের ঘাড়ে দোষ চাপানো যায়; কিন্তু সার কথা যা দাঁড়াচ্ছে, পরবর্তী প্রজন্ম নি:স্ব এবং কঙ্কাল সার শূণ্য এক সমাজ এবং সংস্কৃতি উপহার পেতে চলেছে এই কমিউনিটি থেকে। পোস্ট মর্টেম করলে এর পেছনে বহু কারণ হয়ত বের হয়ে আসবে, নিজেদের দিকে কাঁদা ছোঁড়াছুঁড়ি হবে।

কি দরকার? তার চাইতে ভালো উট পাখি হয়ে বেঁচে থাকি। পরিবর্তনের জন্য প্রস্তুত হোক সবাই। পরবর্তী প্রজন্ম একদিন খুজে বের করবে হারিয়ে যাওয়া এক এলিয়েন সংস্কৃতি, যেখানে রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, লালনদের মতো এলিয়েনদের নিয়ে গবেষণা করে সময় নষ্ট করা হতো। যোগ্যতা না থেকেও নেতৃত্ব নিয়ে নোংরা রাজনীতি চলতো, প্রতিভা না থাকা সত্বেও ক্ষমতার প্রভাবে মঞ্চে উঠে বেসুরো গলায় সারেগামা গাইতো, কবিতার "ক" না জেনেও কবি হতো, আবৃত্তি করতো ভুলভাল, মিথ্যে সার্টিফিকেটে ছবি আঁকিয়ে বলে নিজেকে জাহির করতো, আরো কত কি। সবাই জানে এবং বোঝে। কেউ বলে না বা লেখে না। বেসুরো গলার শিল্পীর গান শুনে হাত তালি দিতে দিতে পাশের জনের কানে কানে বলে "এমন বিনোদন জীবনেও পাই নাই"।

প্রতিবাদ করা ভুলে গেছি আমরা।

সংস্কৃতি মুক্তি পাক, ছড়িয়ে পড়ুক প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে। রবি ঠাকুর, নজরুল আর লালনের জীবন কাহিনী পড়ে বড় হোক শিশুরা।

আরো অনেক কথা লিখতে ইচ্ছে করে। একদিন ঠিকই লিখবো।

লেখকের ফেসবুক পোষ্ট


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান