ব্যালটে দলের কমিটি নির্বাচন: নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির সভাপতি সাইফুল সম্পাদক টিটু

Mon, Dec 11, 2017 11:27 PM

ব্যালটে দলের কমিটি নির্বাচন: নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির সভাপতি সাইফুল সম্পাদক টিটু

বাংলা প্রেস, বোষ্টন: যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে সাইফুল-টিটু পরিষদ জয়লাভ করেছে।সভাপতি পদে সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল পুনঃরায় নির্বাচিত হয়েছেন এবং একই পরিষদের সাধারন সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন আশরাফুল আলম টিটু। স্থানীয় সময় গত রবিবার দুপুর ১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত স্থানীয় ক্যামব্রিজের রিঞ্জ এভেন্যুর একটি কমিউনিটি রুমে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস।

যুক্তরাষ্ট্রের কোন অঙ্গরাজ্যেই বাংলাদেশের কোন রাজনৈতিক দলে ব্যালটের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হলেও ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের বোস্টনে নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির ব্যালটের মাধ্যমে এটি দ্বিতীয় নির্বাচন। গত চার বছর আগে নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির ব্যালটের মাধ্যমে প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এবারের নির্বাচনে ব্যাপক সাড়া পড়ে বোষ্টনে। মোট ১২২ জন ভোটারের মধ্যে ১১৫ জন ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করেছেন।গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে অধিকাংশ ভোটার অংশ নেওয়ায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোজাম্মেল হোসাইনি, নির্বাচন কমিশনার আজাদ খান ও তারেক আহমেদ রুবেন আগত ভোটারদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। নিউ ইংল্যান্ড বিএনপিতে আগামীতেও ভোট প্রদানের এ গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন নির্বাচন কমিশনারবৃন্দ।

এবারে সাইফুল-টিটু ও সোহরাব-বশর পরিষদে মাত্র দু’টি পদে এবারে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক পদে দু’জন করে চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এরা হলেন বর্তমান সভাপতি সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল ও সিনিয়র সহ-সভাপতি সোহরাব এইচ খান। সাধারন সম্পাদক পদে সহ-সভাপতি আবুল বশর ও যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আশরাফুল আলম টিটু।

ভোট গণনা শেষে সভাপতি পদে সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল ও সাধারন সম্পাদক পদে আশরাফুল আলম টিটুকে নির্বাচিত ঘোষনা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোজাম্মেল হোসাইনি।

মোট ১১৫টি প্রদত্ত ভোটের মধ্যে সভাপতি পদে সৈয়দ বদরে আলম সাইফুল পেয়েছেন ৮৬ ভোট নির্বাচিত হয়েছে এবং নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি সোহরাব এইচ খান পেয়েছেন ২৮ ভোট। সাধারন সম্পাদক পদে আশরাফুল আলম টিটু ৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন এবং নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবুল বশর পেয়েছেন ৩৫ ভোট।

এছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কোন প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম। এ পদে একটি মাত্র মনোনয়ন পত্র জমা পড়ে কিন্তু নির্বাচন কমিশনের অসতর্কতার ফলে সাংগঠনিক সম্পাদক প্রার্থী মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামের নামটিও ব্যালট পেপারে মুদ্রিত হয়। এ কারনে তার কোন প্রতিদ্বন্দ্বি নেই তবুও ৭৩টি ভোট পেয়েছেন মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

বোস্টনে নিউ ইংল্যান্ড বিএনপির দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে অংশ নিয়ে স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মিরা বলেছেন প্রবাসে যারা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব প্রদান করে আসছেন তাদেরকে বোষ্টনে এসে শিখতে হবে কীভাবে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচন করতে হয়। এ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকলে ক্ষমতা বা অর্থের জোরে কেউ চিরদিন ক্ষমতাকে আকঁড়ে রাখতে পারবেন না। ভোটাররাই যাচাই বাছাই করবেন নেতাকর্মিদের জনপ্রিয়তা।


External links are provided for reference purposes. This website is not responsible for the content of externel/internal sites.
উপরে যান