কক্সবাজার, উখিয়া-কুতুপালং এলাকায় দাঙ্গার আশংকা করছে জাতিসংঘ

Sun, Oct 8, 2017 9:59 PM

কক্সবাজার, উখিয়া-কুতুপালং এলাকায় দাঙ্গার আশংকা করছে জাতিসংঘ

নতুনদেশ ডটকম: রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দ্রুত মিয়ানমারে ফেরত না পাঠানো হলে কক্সবাজারে বড় মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা করছে জাতিসংঘ। এমনকি অদূর ভবিষ্যতে কক্সবাজারের উখিয়া-কুতুপালং এলাকায় রোগব্যাধির মহামারী এবং দাঙ্গার আশঙ্কাও করছে জাতিসংঘ।

চলতি সপ্তাহে জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে এ  আশংকার কথা বলা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রতিবেদনে রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকট মোকাবেলার ব্যাপারেও একটি কর্মপরিকল্পনা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সংশ্নিষ্ট কূটনৈতিক সূত্র জাতিসংঘের প্রতিবেদন সম্পর্কে তথ্য দিয়েছে। সূত্র জানায়, জাতিসংঘ এই প্রতিবেদনটি বাংলাদেশসহ একাধিক দেশের পররাষ্ট্র দপ্তরকে পাঠিয়েছে। জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক শরণার্থী সংস্থা, বিশ্ব অভিবসান সংস্থা, মানবাধিকার কাউন্সিল এবং আন্তর্জাতিক রেডক্রসের সহায়তায় এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

ঢাকার দৈনিক সমকাল জাতিসংঘের এই প্রতিবেদনটির ভিত্তিতে বিস্তারিত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোহিঙ্গাদের উপস্থিতি যত বৃদ্ধি পাচ্ছে ততই স্থানীয় জনগণের জীবন ও জীবিকার ওপর বিরূপ প্রভাব বাড়ছে। বিশেষ করে এখানে স্থানীয় জনগণের অনেকেই খুবই দরিদ্র। জীবন-জীবিকা অনিশ্চিত হয়ে উঠলে তাদের ক্ষুব্ধ হওয়ার আশঙ্কাও প্রবলভাবে রয়েছে। একই সঙ্গে দীর্ঘদিন নূ্যনতম জীবন ধারণের মতো গৃহ অবকাঠামো সুবিধা থেকে বঞ্চিত হলে এ এলাকায় অবস্থান করা রোহিঙ্গারাও বিক্ষুব্ধ হতে পারে। ফলে উখিয়া-কুতুপালং এলাকায় অদূর ভবিষ্যতে দাঙ্গারও আশঙ্কা রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ মুহূর্তে বিশ্বে সবচেয়ে প্রকট শরণার্থী সংকটের চাপ বাংলাদেশের ওপর। এ অবস্থায় সংকট সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সবাইকে এখনই কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জাতিসংঘের।

বিস্তারিত পড়ুন এইখানে: বড় বিপর্যয়ের আশঙ্কা জাতিসংঘ প্রতিবেদনে


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
External links are provided for reference purposes. This website is not responsible for the content of externel/internal sites.
উপরে যান