রাখাইন পরিদর্শনে কূটনীতিকদের দলে বাংলাদেশ ছিলো না!

Sun, Oct 8, 2017 9:46 AM

রাখাইন পরিদর্শনে কূটনীতিকদের দলে বাংলাদেশ ছিলো না!

নতুনদেশ ডটকম: কূটনীতিকদের জন্য রাখাইনের উপদ্রুত এলাকা  সফরের আয়োজন করেছিলো মিয়ানমার সরকার। জাতিসংঘসহ মিয়ানমারে কর্মরত বিভিন্নদেশের রাষ্ট্রদূতরা সেই সফরে অংশ নিলেও সেখানে  বাংলাদেশের  কোনো প্রতিনিধি ছিলো না। মিয়ানমারে কর্মরত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নিজেই সফরে যান নি নাকি মিয়ানমার তাকেঁ এই টিমে অন্তর্ভূক্ত করেনি, তা জানা যায় নি।

প্রসঙ্গত, গত ২ অক্টোবর মিয়ানমার সরকারের ব্যবস্থাপনায় কূটনীতিকদের এই সফরের আয়োজন করা হয়। তাঁরা উত্তর রাখাইনে ক্ষতিগ্রস্থ কয়েকটি গ্রাম ঘুরে দেখেন এবং সেখানকার অধিবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন। মিয়ানমার থেকে লাখো লাখো রোহিঙ্গার দেশ ত্যাগ ও বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়ার পর ঘটনাস্থলে এটিই ছিলো কূটনীতিকদের প্রথম সফর।

মিয়ানমার সরকারের আয়োজন করা ‘গাইডেড ট্যূরে’ কূটনীতিকদের মধ্যে যারা অংশ নিয়েছেন তারা হলেন , কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র ,ফ্রান্স, ডেনমার্ক,অষ্ট্রেলিয়া, চেক রিপাবলিক, ইন্দোনেশিয়া, ইতালি, নেদারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, নরওয়ে,সার্বিয়া,সুইজারল্যান্ড,  তুরষ্ক, জার্মানী, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, স্পেন, যুক্তরাজ্য, ফিনল্যান্ড ,সুইডেন, এর রাষ্ট্রদূত।

উপদ্রুত এলাকা পরিদর্শন শেষে কূটনীতিকরা একটি যৌথ বিবৃতিও দিয়েছেন। তাতে তাঁরা উল্লেখ করেছেন, কূটনীতিকদের এই সফর কোনো তদন্ত পরিচালনা নয়, তদন্ত করার মতো অবস্থায়ও তারা নেই। বিবৃতিতে বলা হয়,  মানবাধিকার লংঘনের অভিযোগ তদন্ত বা অনুসমন্ধান করার জন্য বিশেষজ্ঞদের থাকতে হয়।

যৌথ বিবৃতির শুরুতেই ২৫ আগষ্ট ‘আরসার’ হামলার নিন্দা জানানো হয়। বিবৃতিতে কূটনীতিকরা বলেছেন,রাখাইনের কয়েকটি গ্রাম পরিদর্শনকালে অগুনে পুড়ে যাওয়া বাড়ীঘর তারা দেখেছেন, বিভৎস মানবিক সংকট তারা প্রত্যক্ষ করেছেন। তারা নির্যাতন বন্ধ এবং নাগরিকদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান  জানিয়েছেন।

কূটনীতিকদের বিবৃতিতে বলা হয়েছে,র্কটনীতিকদের এই সফরটিকে তারা মিডিয়াসহ মিয়ানমারের রাখাইন এলাকায় সকল মহলের অবাধ প্রবেশের জন্য খুলে দেওয়ার এটি একটি সূচনা হিসেবে তারা প্রত্যাশা করছেন।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান