মিশিগানে দুর্গাপূজা উদ্‌যাপন

Wed, Oct 4, 2017 1:38 PM

মিশিগানে দুর্গাপূজা উদ্‌যাপন

সাইফুল আজম সিদ্দিকী, মিশিগান (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে :বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ডেট্রয়েট ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় উদ্‌যাপিত হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। কালীবাড়ি মন্দির ও দুর্গাবাড়ি মন্দির, ট্রাই সিটি বাঙ্গালী অ্যাসোসিয়েশান, বিচিত্রা সহ বিভিন্ন সংগঠন পৃথক  পৃথক মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হয়। মিশিগানে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি ও পশ্চিম বঙ্গের হিন্দুদের কয়েক্ টি সংগঠন সর্বজনীন পূজা কমিটি প্রতি বছর এই পূজার আয়োজন করে থাকে।

এবার পূজার দিনে মিশিগানের আবহাওয়া ভালো থাকায় সকাল থেকেই অঙ্গরাজ্যের দূর-দুরান্ত থেকে পূজারিরা পূজামণ্ডপে এসে সমবেত হতে শুরু করেন। প্রায় শহস্রাধিক পূজারি দুর্গতিনাশিনী মা দুর্গার চরণে অঞ্জলি দেওয়ার জন্য ছুটে এসেছিলেন। প্রতি বছরের মতো এবারও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পাশাপাশি বিভিন্ন ধর্মের উল্লেখযোগ্যসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি ও আমেরিকান উপস্থিত ছিলেন আবহমান বাংলা ও বাঙালির ঐতিহ্যের এ অনুষ্ঠানে।

অঞ্জলি দেওয়ার পর উপস্থিত সকলের মাঝে বিতরণ করা হয় পূজার প্রসাদ। প্রতি বছর পূজা কমিটি পর্যাপ্ত পরিমাণ পূজার প্রসাদ তৈরি করে থাকেন। অনেকে দূর-দুরান্ত থেকে ছুটে আসেন পূজার এ প্রসাদের জন্য।

মিশিগান দুর্গা মন্দিরে পাঁচ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের বিশেষ আকর্ষণ ছিল জি বাংলার সারেগামা’র শিল্পী স্বাগতা দে। শেষ দিনে ছিল ঐতিহ্যবাহী ধূনুচি নৃত্য। বিশেষ নৃত্যালেখ্য’ পরিবেশিত হয়। শুভ বিজয়া দশমি ও সিঁদুর খেলার মাধম্যে দুর্গা পূজার সমাপ্তি ঘটে।

অঙ্গরাজ্যের সাগিনাও শহরে দুর্গা পূজার আয়োজন করে ট্রিই- সিটি বাঙ্গালী অ্যাসোসিয়েশান। হেরিটেজ হাই স্কুল এ পূজা উপলক্ষে কনসার্টে গান পরিবেশন করে সারেগামাপা ফাইনালিস্ট বিশ্বজিৎ বরয়াঙ্কার। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন ডাঃ দেবাশিষ মৃধা ও চিনু মৃধা দীপা। 

কালী বাড়ি মন্দিরে অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বে প্রথমেই ছোট ছোট শিশুরা নাচ, গান, ছড়া, কবিতা আবৃত্তি ও প্রবন্ধ পাঠ করে দর্শক-শ্রোতাদের মন ভরিয়ে দেয়। স্থানীয় সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ভক্তিমূলক গান ও কীর্তন দিয়ে দর্শক-শ্রোতাদের মাতিয়ে তোলে। এরপর স্থানীয় শিল্পীদের নৃত্যের তালে তালে চলে নাচ। রামায়ণনের অংশ বিশেষ মঞ্চস্থ করেন ঠাকুর মন্ডল, দেবাঞ্জন দীপ , দিপন চন্দ্র, তিশা সাহা প্রমুখ। পরিশেষে আরতি, সিঁদুর খেলা, মিষ্টিমুখ ও আলিঙ্গনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় এবারের পূজার সকল আয়োজন।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
External links are provided for reference purposes. This website is not responsible for the content of externel/internal sites.
উপরে যান