১২ দেশে খালেদা জিয়া পরিবারের ১২০০ কোটি টাকার সম্পদ!

Wed, Sep 13, 2017 10:14 PM

১২ দেশে খালেদা জিয়া পরিবারের ১২০০ কোটি টাকার সম্পদ!

নতুনদেশ ডটকম: দুবাইসহ অন্তত ১২টি দেশে  বিএনপি চেয়ার পার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের সদস্যদের ১২০০ কোটি টাকার সম্পদ আছে। গ্লোবার ইনটেলিজেন্স নেটওয়ার্ক (জিআইএন) নামের একটি সংস্থার রিপোর্টের উদ্ধৃতি দিয়ে জাতীয় সংসদে এই তথ্য তুলে ধরেছেন জাতীয় পার্টির এমপি ফখরুল ইমাম।

জাপা এমপির এই তথ্যের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,তথ্যগুলো যখন বের হয়েছে, তখন নিশ্চয়ই আমাদের কাছে তা আছে। এটা নিয়ে তদন্ত চলছে। তাছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে মানি লন্ডারিংয়ের জন্য একটি তদন্তের ব্যবস্থা আছে। সেই সূত্রেও তদন্ত করা হচ্ছে। এই তদন্তেরর মধ্য দিয়ে সত্যতা যাচাই করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঢাকার মিডিয়ায় এই তথ্য নিয়ে বড় শিরোনাম হলেও বেগম খালেদা জিয়া বা বিএনপির পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে কোনো বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

জাপা নেতা ফখরুল ইমাম সংসদে বলেন দুবাইয়ে খালেদা জিয়ার মালিকানায় একটি শপিং মল রয়েছে। কাতারে বহুতল বাণিজ্যিক ভবন ইকরা’-এর মালিক আরাফাত রহমান কোকো। খালেদা জিয়ার ভাগনে তুহিনের নামে কানাডায় তিনটি বাড়ি রয়েছে।

জিয়া পরিবার ছাড়াও বিএনপির কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতার বিদেশে সহায় সম্পত্তির তথ্যও তিনি উল্লেখ করেন। এতে বলা হয়,  বিএনপি সরকারের সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফের রয়েছে সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে-তে বিলাসবহুল হোটেলের শেয়ার। মেরিনা বে হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টের ১৩ হাজার শেয়ারের মালিক তিনি। খন্দকার মোশাররফের সিঙ্গাপুরে দুটি বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট রয়েছে। মালয়েশিয়ায় রয়েছে তিনটি অ্যাপার্টমেন্ট। সাবেক মন্ত্রী বিএনপি নেতা আমিনুল হকের নামে লন্ডনের স্ট্রাটফোর্ড ও অলগেটে দুটি অ্যাপার্টমেন্ট রয়েছে। লন্ডনে বাড়ি আছে মওদুদ আহমদেরও। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রীর নামে দুবাইতে রয়েছে অ্যাপার্টমেন্ট। সিঙ্গাপুরে মির্জা আব্বাস তাঁর সন্তানের নামে দুটি অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছেন। মালয়েশিয়ায় মির্জা আব্বাসের স্ত্রীর নামে রয়েছে সিটি সেন্টার-২’-এ তিনটি ২৫০০ বর্গফুটের বাণিজ্যিক জায়গা। বিএনপির আরেক নেতা নজরুল ইসলাম খানের সিঙ্গাপুরে অ্যাপার্টমেন্ট রয়েছে।

বিদেশে দলের চেয়ার পার্সনসহ বিএনপি নেতাদের বিপুল পরিমান সম্পত্তির তথ্য প্রকাশ পেলেও এ নিয়ে বিএনপি কিংবা বিএনপির কোনো নেতা এ নিয়ে কোনো ব্যাখ্যা দেননি বা প্রতিবাদ জানাননি।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান