দুর্নীতির মূল কারন বিশ্লেষণ করুন, জানুন

Wed, Sep 23, 2020 1:38 PM

দুর্নীতির মূল কারন বিশ্লেষণ করুন, জানুন

রোমেনা হক রুমা : যাদের কারণে প্রশাসন অকার্যকর, যাদের কারনে যথার্থ পদবীতে যথোপযুক্ত ব্যাক্তি রাষ্ট্রের দায়িত্ব পালনের অক্ষম, যাদের কাছে দেশপ্রেম, জনসেবা, নীতি-নৈতিকতা এসব হচ্ছে কেতাবীভাষা তারাই দেশের সার্বিক নিয়ন্ত্রন করে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের সাবেক ডিজি আজাদের গাড়িচালক আব্দুল মালেক ড্রাইভারের শিক্ষাগত যোগ্যতা মাত্র ৮ম শ্রেণী। এ অনৈতিক কাজগুলি স্বাভাবিক তার কাছে।

 খবরে জানা গেল যে, দুদক শুধু আবজাল বা মালেক নয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তৃতীয়-চতুর্থ শ্রেনীর আরো ৪৪ জন কোটিপতির সন্ধান পেয়েছে। দেশমাতৃকা চুলোয় যাক আপনি বাঁচলে বাপের নাম, যেমনে পারছে কামিয়ে নিচ্ছে! সিলেট-তামাবিল চার লেন মহাসড়ক প্রকল্পে প্রতি কি:মি: খরচ নাকি ৬৪ কোটি পড়েছে। প্রতিটি সেক্টরে ভালো মানুষ যেমন আছেন তেমনি আছে খারাপ মানুষ। খারাপের পাল্লাটি বিগত কিছু বছর যাবত অত্যধিক। দেশের সম্পদশালীদের সম্পদের বৈধ উৎস খুব একটা পাওয়া যাবেনা এবং তারাই সবাই হর্তাকর্তা, বিচারক। চাঁদা দিয়ে সব সন্ত্রাসীগন তাঁদের সন্ত্রাসকে, অবৈধ উপার্জনকে ধামাচাপা দিয়ে রাখছে। অসহায় জনগন সবই জানে ও বুঝে প্রতিবাদ বা প্রতিরোধ করতে পারেনা কারন প্রতিরক্ষা ও প্রশাসন তাঁদের পক্ষে। ক্ষীণস্বরে কেউ কেউ প্রতিবাদ করে, কেউ আমাদের মত অযথাই লিখে যায়। কেউ গুম হয়ে যায়। কেউ কম্প্রমাইজ করতে বাধ্য হয়।

 সময় হয়েছে এবার, উপরের দিকে হাত দিতে হবে, স্বচ্ছতার বিকল্প কিছু নেই। যাদের হাতেই জনগণের জানমালের ভাড় তারাই প্রশ্নবিদ্ধ। চারিদিকটা আজ বড়ই অন্ধকার, করোনার প্রকোপ, মানুষের অনাহার, অর্থোপার্জন নেই বল্লেই চলে কিন্তু বিড়ালের গলায় ঘণ্টা বাঁধবে কে? !!মন্ত্রী, সচিবদের কথা বলুন। এক ফেসবুক বন্ধু মাসুম আহমেদ লিখেছেন, ‘’ তমাল মনসুর সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিমের ছেলে!।তমাল মনসুরের নামে নিউইয়র্ক শহরে ১২টি এপার্টমেন্ট সাথে ৪টি পার্কিং স্পট কিনেছে ফুল ক্যাশ পয়সা দিয়ে। দুইটা প্রাইভেট হাউস একদম স্ক্রাচ থেকে বিল্ড করেছে!অভিজাত এলাকায়।এরকম একটা এপার্টমেন্টর দাম মিনিমাম প্রতি এপার্টমেন্ট হাফ মিলিয়ন ডলারের উপরে তো হবেই। এখন হিসাব করেন ১২টা এপার্টমেন্টের দাম কতো? নিউইয়র্কে একটা প্রাইভেট হাউস একদম স্ক্রাচ থেকে বানাতে হলে কতো লাগে জানেন? সেই হিসাব আপাতত নাই দিলাম!’’

দুর্নীতির মূল হোতাদের নিয়ে আমরা তেমন কোনো প্রশ্ন তুলি না। প্রশ্ন তুলি চাকর বাকর ড্রাইভার বুয়া সহকারীদের নিয়ে। কত স্টুপিড আমরা। অসৎ এক ড্রাইভারকে নিয়ে এত হৈচৈর মতো কিছু না । সমাজে এরকম হাজার জন আছে যারা আপনার আমার আশেপাশেই।

 এ দেশে বড়লোকি করা লজ্জার, বিবেকবাঞ্জন খুবই সাধারণ। তবুও মানুষ বাঁচার জন্য সংগ্রাম করে। যতক্ষণ শ্বাস ততক্ষণ আঁশ,  দুর্নীতির রুটকজ (Root cause) বিশ্লেষণ করুন, জানুন, সন্ধান করুন, খুঁজে সেটি বন্ধ করুন। দুর্নীতি দূর করতে দরকার রাজনৈতিক সদিচ্ছা আর সেখানেই আসল রহস্য। বড় বড় দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন কিছু ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে কোনদিন দুর্নীতিবাজদের ঠেকানো যাবেনা। লোভ বড় ভয়ানক জিনিস। জবাবদিহিতার পর নিয়মতান্ত্রিকভাবে দেশ চালানোর জন্য বেশ কিছু দক্ষ চালক প্রয়োজন।

 যা অবস্থা দেশে তাতে তো দেখা যায় আমাদের হাসিনা আপাই একজন, তাকেই সব দেখভাল করতে হয়। উনার পক্ষে একা সম্ভব নয়। প্রবাসীদের সাহায্য নিন। নন রেসিডেন্ট বাংলাদেশী ( Non Resident Bangladesh) এন আর বি-সারাবিশ্বে ছড়িয়ে থাকা প্রবাসীদের। যারা যুগ যুগ ধরে পৃথিবীর ভিন্ন ভিন্ন সভ্যদেশে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। দেশের মেধা ও প্রকৃত সম্পদ, তাঁদেরকে খুঁজুন, সম্মান দিন, খুঁজে ডেকে নিন। আর দেশপ্রেম?? যা ওদেরই আছে! ভাবতেও পারবেন না ওদের দেশপ্রেম। কেউ কেউ তো বিনাশ্রমেও দেশের ডাকে ফিরে আসবে। তারা চাইলেও আর অস্বচ্ছ, অসৎ হতে পারবেনা, বিশ্বাস করুন। প্রমিজ দেখিয়ে দেব !! তাঁদের অভ্যাস বদলে গিয়েছে।


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান