ঢাকায়  বিমানবন্দরে যাত্রীসেবা নিয়ে গণশুনানী

Tue, Sep 22, 2020 1:24 PM

ঢাকায়  বিমানবন্দরে যাত্রীসেবা নিয়ে গণশুনানী

যাত্রীদের সঙ্গে বিমানবন্দরে নিয়োজিত সব সংস্থার কর্মীদের আচরণে পরিবর্তন আনতে নির্দেশ দিয়েছেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান।

মঙ্গলবার ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রীসেবা নিয়ে গণশুনানিতে এই নির্দেশ দেন তিনি।

বিমানবন্দরের কর্মীদের আচরণ নিয়ে সাংবাদিকদের অভিযোগের জবাবে বেবিচক চেয়ারম্যান বলেন, “ব্যবহারে পরিবর্তন আনতে হবে। এটা একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, এখানে যারা কাজ করবে তাদের প্রত্যেককের আচার-ব্যবহারও আন্তর্জাতিক মানের হতে হবে। আমরা প্রতিটি সংস্থার লোকজনকে সব সময় বলি যাত্রীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতে হবে।

বিমানবন্দরের পুলিশ, ইমিগ্রেশন, কাস্টমসসহ সব সংস্থার প্রতিনিধিদের যাত্রীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করার অনুরোধ করেন তিনি।

প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মীদের এ বিষয়ে শিক্ষিত করতে হবে। যেন হাসি মুখে যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেন সবাই,” বলেন বেবিচক চেয়ারম্যান।

বিভিন্ন স্থানে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের জমির অবৈধ দখল উচ্ছেদ করতে ব্যবস্থা নেওয়ারও ঘোষণা দেন তিনি।

সৌদি আরবে ফ্লাইট প্রসঙ্গে এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বলেন, “এত দিন সৌদি আরবের সঙ্গে আমাদের আকাশপথে যোগাযোগ পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন ছিল। মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশই ফ্লাইট শুরু করেছে। আমরা চাচ্ছিলাম সৌদি আরব থেকেও ফ্লাইট শুরু হোক।

দুই সপ্তাহ আগে সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইন্স আমাদের কাছে অনুমোদন চায়, আমরা অনুমতি দিয়েছি। যদিও আমাদের বাংলাদেশি এয়ারলাইন্সও সে দেশে যেতে পারবে- এই শর্তে আমরা অনুমোদন দিয়েছি। আমরা জানতে পেরেছি, যাদের আকামার মেয়াদ আছে তারা যেতে পারবেন। শুধু ভিজিট ভিসা ও ওমরা ভিসায় যাওয়া যাবে না। আমরা জানতে পারলাম, বিমানকে চার্টার্ড ফ্লাইটের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বাণিজ্যিক  ফ্লাইটের অনুমোদন দেওয়া হয়নি। বিমানকে অনুমোদন না দেওয়ায় অনেকেই চাচ্ছিলেন সাউদিয়ার অনুমোদন বাতিল করা হোক, কিন্তু আমরা সিভিল এভিয়েশন থেকে বাতিল করিনি। আমাদের বাংলাদেশি প্রবাসী ভাইদের যাওয়া নিশ্চিত করতে সাউদিয়া ও বিমান যেন চলাচল করতে পারে, সে বিষয়ে কথা বলেছি।

বেবিচক চেয়ারমান বলেন, “আমাদের বিমানও যেন যেতে পারে, সেই চেষ্টা করছি।  বিমান থেকে জানতে পেরেছি, তারা এখনও অপারেশনের অনুমতি পায়নি। আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করব। আমরা সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে কথা বলেছি। বাংলাদেশিদের ফিরে যেতে সাউদিয়া যে কয়টা ফ্লাইটের অনুমোদন চাইবে, আমরা দেব। তবুও যেন প্রবাসীরা ফিরে যেতে পারেন। একইসঙ্গে আমাদের বিমান বাংলাদেশও যেন যেতে পারে সেজন্য কাজ করছি।

ফ্লাইটের ভাড়া বৃদ্ধি প্রসঙ্গে মফিদুর রহমান বলেন, “সাউদিয়া এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, তারা ট্রাভেল এজেন্সিগুলোকে ব্লক করেনি। ট্রাভেল এজেন্সিও টিকেট বিক্রি করছে। আমাদের দেশি কিছু এজেন্সি টিকেট ব্লক করে ভাড়া বাড়িয়ে দিচ্ছে। তারা আমাদের প্রবাসীদের ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। আমরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার মাধ্যমে তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করব।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আহসান বলেন, “বর্তমানে দিনে ২৫-৩০টি ফ্লাইট চলাচল করছে। বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছে। যাত্রীদের সুবিধার্থে বিমানবন্দরের বিভিন্ন স্থানের সংস্কার করা হচ্ছে।

গণশুনানিতে যাত্রী ছিলেন দুজন

বিমানবন্দরের যাত্রীদের অভিযোগ, পরামর্শ শুনতে এ গণশুনানির আয়োজন করা হলেও সেখানে মাত্র দুইজন যাত্রী ছিলেন। গণশুনানি শুরুর আগে ১০-১২ জন যাত্রীকে শুনানিতে অংশ নিতে নিয়ে আসেন বিমানবন্দরের কর্মীরা। তবে কয়েক মিনিটের মধ্যেই চলে যান তারা।

পরবর্তীতে সেখানে উপস্থিত সাংবাদিক ও বিমানবন্দরে নিয়োজিত বিভিন্ন সংস্থার কর্মীরা বক্তব্য রাখেন।

গণশুনানিতে যাত্রীদের উপস্থিতি না থাকা প্রসঙ্গে বেবিচক চেয়ারম্যান বলেন, “এখন কম ফ্লাইট কম, তাই যাত্রীও কম। যেসব যাত্রী বিমানবন্দরে আসেন তারা আসলে মিটিংয়ে যোগ দেওয়ার মাইন্ডসেট নিয়ে আসেন না, তাদের টার্গেট কখন ফ্লাইটে উঠবেন।

দুই-একজনকে অনুরোধ করে নিয়ে আসা হয়, যদি তারা কোনো অভিযোগ জানাতে চান।

গণশুনানিতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের সদস্য (পরিচালনা ও পরিকল্পনা) এয়ার কমডোর মো. খালিদ হোসেন, সদস্য (প্রশাসন) মো. মিজানুর রহমান, সদস্য (নিরাপত্তা) মো. শহীদুজ্জামান ফারুকী, সদস্য (এটিএম) এয়ার কমডোর মো. আমিনুল ইসলাম, প্রধান প্রকৌশলী মো. আবদুল মালেক, বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের কমান্ডিং অফিসার মোহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম খান, এওসি চেয়ারম্যান দিলারা আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান