করোনাও রাজনৈতিক দলগুলোকে এক টেবিলে বসাতে পারলো না

Fri, Jun 26, 2020 1:03 PM

করোনাও রাজনৈতিক দলগুলোকে এক টেবিলে বসাতে পারলো না

আনোয়ার সাদী : বিশ্বজুড়েই করোনা মহামারী চলছে। তার প্রভাব বাংলাদেশেও আছে। দেশেরএই সময়েও ঐক্যমত হলো না রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে। এক টেবিলে বসতে পারলো না আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। এই কথা গুলো আমার না। বলেছেন, ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের আইনের অধ্যাপক শেখ হাফিজুর রহমান কার্জন। বুহস্পতিবার নিউজ টোয়েন্টিফোরের ফ্ল্যাগশিপ টক শো জনতন্ত্রে গণতন্ত্রে তিনি এই কথা বলেন। টকশো টি আমি উপস্থাপনা করেছি।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য শামীম হায়দার পাটোয়ারি এম পি বলেছেন, বাংলাদেশে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ঐক্য নেই। করোনা সংক্রমনের এই সময়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কারা মুক্তির মধ্য দিয়ে জাতীয় ঐক্যের একটি প্রক্রিয়া শুরু হতে পারতো বলে বলে তিনি মনে করেন। পরে আর বিষয়েটি এগোয়নি বলেও মত তার।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ অবশ্য মনে করেন, অনৈক্য বাংলাদেশে রাজনীতির ঐতিহাসিক বিষয়। কেবল জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধেই মানে এরশাদের বিরুদ্ধে বিএনপি ও আ্ওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলো। সে ঐক্যের মাঝেও আ্ওয়ামী লীগ জাতীয় পার্টির সঙ্গে নির্বাচনে চলে যায় বলে মন্তব্য করেন তিনি। করোনা মহামারীর এই সময়ে সব দলের একটি টাস্কফোর্স হতে পারতো বলে তিনি মনে করেন। তা না হওয়ার জন্য তিনি আ্ওয়ামী লীগকে দায়ী করেন।

 

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন অবশ্য শামা ওবায়েদের সঙ্গে মোটেও একমত নয়। বিএনপিকে নির্বাচনে আনতে আ্ওয়ামী লীগের নানা উদ্যোগ এমনকী খালেদা জিয়াকে শেখ হাসিনার ফোন করার প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি। বলেন, আ্ওয়ামী লীগের প্রতিটি আন্তরিক উদ্যোগের বিপরীতে বিএনপি অবহেলা ও বিরোধীতাই দিয়েছে। কাজেই রাজনৈতিক দলগুলোর ঐক্য হওয়ার পেছনে তার মতে দায় বিএনপির। তিনি মনে করেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ আছে।

 

টক শো তে আলোচনা করি নাই, কিন্তু পরে মনে প্রশ্ন জেগেছে এখন রাজনৈতিক দলগুলোর ঐক্য কীভাবে পরিস্থিতি মেকাবিলায় সহায়তা করবে? প্রথমত করোনা মহামারী একটা স্বাস্থ্য বিপর্যয়। এখানে দিক নির্দেশনা দিতে পারেন চিকিৎসক, জানস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা যদি রাজনৈতিক পরিচয় নিয়ে এখন আলাদা আলাদা থাকেন, তা তো ভালো কথা হতে পারে না।

 

মহামারী মোকাবিলায় সরকারকে কোন সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা যদি কোন রাজনৈতিক দল দিতে চায় তাহলে সংবাদ সম্মেলন করে দিতে পারে। এমনকী হারুন সাহেব সংসদে বলতে পারেন।

সরকার শুনতো না ? জনতা শুনবে। জনতা শুনে কী হবে? সেটা আরেক আলোচনা । অন্যকোনদিন করা যাবে।

লেখকের ফেসবুক থেকে

লেখক: আনোয়ার সাদী, নিউজ২৪ এর সিনিয়র বার্তা সম্পাদক


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান