দীর্ঘদিন পর মঞ্চে ওঠেই মুগ্ধ করলেন  শিল্পী নুরুল আলম লাল

Sat, May 4, 2019 11:18 PM

দীর্ঘদিন পর মঞ্চে ওঠেই মুগ্ধ করলেন  শিল্পী নুরুল আলম লাল

নতুনদেশ ডটকম : দীর্ঘদিন পর আবার মঞ্চে উঠলেন টরন্টোর জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নুরুল আলম লাল। মঞ্চে ওঠেই মুগ্ধ করলেন ভক্তদের, শ্রোতাদের। প্রায় দুই বছর পর  কিংবদন্তির সঙ্গীত শিল্পী মান্না দে’র জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত  অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের আগষ্ট মাসে সড়ক দুর্টনায় মারাত্মক হন শিল্পী নুরুল আলম লাল। প্রায় এক মাস হাসপাতালে কাটিয়ে সেপ্টেম্বরে বাড়ী ফিরে যান তিনি। কিন্তু শরীর পুরোপুরি সুস্থ না হওয়ায় তিনি এর পর আর মঞ্চে গান গাইতে ওঠেননি।

এবার টরন্টোর সাংস্কৃতিক কর্মীরা কিংবদন্তির সঙ্গীত শিল্পী মান্না দে’র জন্ম  শত বার্ষিকী  উদযাপনের উদ্যোগ নেয়। মান্না দেকে অনুষ্ঠান হবে আর ‘টরন্টোর মান্না দে’ খ্যাত শিল্পী নুরুল আলম লাল গান গাইবেন না- তা কি করে হয়। আয়োজকরা ধরে বসেন তাকে। শেষ পর্যন্ত অনুষ্ঠানে গান গাইতে সম্মত হন শিল্পী। শারীরিক অসুস্থতা নিয়েই আসেন অনুষ্ঠানে ।

 ‘না, না, না, যেও না/ ও শেষ পাতা গো শাখায় তুমি থাকো...’ গানটি দিয়ে পরিবেশনা  শুরু করেন শিল্পী নুরুল আলম লাল। বিপুল  করতালি দিয়ে দর্শকশ্রোতারা  তাকে স্বাগত জানান। তিনি পরপর চারটি গান পরিবেশন করেন। মন্ত্রমুগ্ধের মতো দর্শক শ্রোতারা তার গানে ডুবে থাকেন।  শিল্পী নুরুল আলম লাল যখন গান গাইছিলেন, মঞ্চে তার পাশে ছিলেন  তাঁর কৃতি দুই সন্তান। তবলা ও কিবোর্ড বাজিয়ে সংগত করেন তাঁর পুত্রদ্বয় তানভীর আলম সজীব ও তানজীর আলম রাজীব।

নূরুল আলম লালের পর  অবশ্য তানভীর আলম সজীব্ও সংগীত পরিবেশন করেন । তিনি বাল্যকাল থেকে মান্না দের সান্নিধ্য পেয়েছেন এবং স্বয়ং মান্না দের সঙ্গে বাজিয়েছেন, সেই গল্প সবার সঙ্গে ভাগাভাগি করেন। সজীব মান্না দেকে উৎসর্গ করে নিজের লেখা ও সুর করা একটি গান পরিবেশন করেন।

অনুষ্ঠানে আলোচনা করতে এসে টরন্টোর বাংলা টেলিভিশনের প্রধান সাজ্জাদ আলী বলেন, নুরুল আলম লাল এবং তার দুই সন্তানের যুগল সংগতের মাধ্যমে মান্না দে’র স্মরণ অনুষ্ঠানের সূচনা করা অনুষ্ঠানকে ভিন্নমাত্রা দিয়েছে।


Designed & Developed by Tiger Cage Technology
উপরে যান