৮ময় বর্ষ সংখ্যা ৪৬ | সাপ্তাহিক  | ১৯ জুলাই ২০১৭ | বুধবার
কী ঘটছে জানুন, আপনার কথা জানান

উইনিপেগে বর্ষবরণ ১৪২৪

সাইদুল ইসলাম

কানাডার ম্যনিটোবা প্রদেশের রাজধানী উইনিপেগে আজ (১৭ এপ্রিল) বাংলা নব বর্ষবরণ হয়ে গেল। ১৪২৪ কে বরণ করতে দুপুরের আগ থেকেই বাংলদেশিদের ভীড় জমেছিল শহরের অসবর্ন কমিউনিটি সেন্টারে। দুপুর বারোটায় ম্যানিটোবার ক্রীড়া, সংষ্কৃতি ও ঐতিহ্য বিষয়ক মন্ত্রী  রোশেল স্কয়্যার্সের অনুষ্ঠান উদ্বোধনের কথা। সকাল সকাল এসে আমাদের বন্ধন সমবায় সমিতির স্টলে ঝালমুড়ি বেচতে বেচতে সেসব ভুলে গিয়েছিলাম। হঠাৎ দেখি সিবিএ  ম্যানিটোবার( কানাডা বাংলাদেশ এসোসিয়েশন বাংলাদেশ) সভাপতি ডঃ রহিদুল মন্ডল উইনিপেগ সাউথের এমপি টেরি ডুগ্যার্ডের সাথে স্টলের সামনে হাজির। টেরি ডুগ্যার্ডের সাথে পরিচয় হয়েছিল ২১শে ফেব্রুয়ারি তে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের সময়। তিনি হাত মেলাতে মেলাতে জিগ্যেস করলেন কি বিক্রি কর?

-          পাফড রাইস খানিকটা ঝাল মসল্লা দিয়ে ।

বলতে বলতে তাঁর হাতে একমুঠ শাদা মুড়ি দিলাম। তিনি সাচ্ছন্দে মুখে দিয়ে বললেন

-          ইটস ক্রিস্পি।

 বললাম, স্পাইসি খেয়ে দেখবেন?

রসিক মানুষ ডুগ্যার্ড বললেন, একদিনেই?

তারপর অন্যান্য স্টলে ঘুরে বেড়াতে লাগলেন। আমার গতবারের লেখার একটা অংশ মনে পড়ে গেল। গতবার ছিল উইনিপেগে আমার প্রথম বর্ষবরণ। সরকারি কোন প্রতিনিধির উপস্থিতি না দেখে মন খারাপ হয়ে গিয়েছিল। নিজেকে প্রবোধ দেবার জন্যে কল্পনা করে লিখেছিলাম,

‘উইনিপেগে আজ পয়লা বৈশাখ। স্কুল কলেজে সরকারি ছুটি। সিটি মেয়র ব্রায়ান বাওম্যান এসেছিলেন বাঙালিদের বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে। তাপমাত্রা এখনো বাংলাদেশের বৈশাখের পর্যায়ে পৌঁছেনি। শীতের মধ্যে পান্তাভাত ভালো লাগে না। বাঙালি বউরা গরমটরম করে বহু কষ্টে পান্তা ভাতে বাংলাদেশি স্বাদ ধরে রেখেছেন। মরিচ ভর্তা দিয়ে সেই ভাত খেতে গিয়ে ব্রায়ানের মুখ চোখ লাল হচ্ছে, যাচ্ছেতাই অবস্থা। তারপরও তিনি দুইবার ভাত চেয়ে নিয়েছেন’।

গত একবছরে রেড রিভার দিয়ে অনেক জল গড়িয়েছে। বাংলাদেশীদের অবস্থানও অনেক সংহত হয়েছে। আজ সত্যি সত্যিই একজন কানাডিয়ান এমপি নিজেদের লোকের মত বাঙালি খাবার চেখে বেড়াচ্ছেন। বিষয়টি যদি গর্বের হয় তবে সেই কৃতিত্ব ম্যানিটোবার বাঙালিদের।

            সিবিএ ম্যানিটোবা বর্ষবরণের এই অনুষ্ঠানে নানান আয়োজনের সমাহার ঘটেছিল।  আনুষ্ঠানিক ভাবে অনুষ্ঠান উদ্বোধনের আগেই শুরু হয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশি ফুড ফেস্টিভ্যাল। মেহেদী উতসব আর লটারি। মেহেদীর ব্যাবস্থাপনা সিবিএর। আর লটারির স্পন্সার উইনিপেগের রিয়্যাল্টার রেজা কাদেরি। ১০টি স্টলে বিপুল উৎসাহেপিঠাপুলি থেকে শুরু করে বিরিয়ানি, হালুয়া, চটপটির পশলা সাজিয়ে বসেছিলেন ম্যনিটোবার বাঙালিরা। সিবিএর পক্ষ থেকে অভ্যাগতদের আপ্যায়ন করা হয়েছিল পান্তা ভাত, ইলিশ আর দুই রকমের  ভর্তা দিয়ে।

            কয়েকদিন আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল সিবিএ পহেলা বৈশাখে সবাইকে পান্তা ইলিশ খাওয়াতে যাচ্ছে। ইলিশ  বৈশাখের মাছ কিনা সে বিতর্কে না গিয়ে, উইনিপেগের মত জায়গায় এত মানুষকে ইলিশ মাছ খাওয়ানো সম্ভব কিনা সেই আলোচনায় যারা মেতে উঠেছিলেন। তারাই অনুষ্ঠান শেষে বলেছেন আন্তরিকতা আর একতা থাকলে সবই সম্ভব।

             অনুষ্ঠানের মূল পর্ব শুরু হয়েছিল মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে। পুরো পুরি বাঙালি পোশাকে শোভাযাত্রায় অংশ  নিয়েছিল বিভিন্ন বয়সের মানুষ। ঝাল মুড়ি বেচতে গিয়ে সেসব দেখা হয়ে ওঠেনি আমার। তবে গান, বাজা বক্তৃতা শুনতে পারছিলাম পুরোটাই।

           ক্রীড়া, সংষ্কৃতি ও ঐতিহ্য বিষয়ক মন্ত্রী  রোশেল স্কয়্যার্স  বাঙালিদের নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, কানাডা বহু সংষ্কৃতির দেশ।সব দেশের ভাষা ও সংষ্কৃতিকে  লালন করতে সরকার বদ্ধ পরিকর।

            টেরি ডুগ্যার্ড বলেন, সাউথ উইনিপেগের অধিবাসীরা প্রায় ৫০টি ভাষায় কথা বলেন। এত রকমের ভাষা এবং সংষ্কৃতি প্রকৃত পক্ষে কানাডার সংষ্কৃতিকেই সমৃদ্ধ করেছে।

            সিবিএ ম্যানিটোবার সভাপতি ডঃ রাহিদুল মন্ডল সকলকে নববর্ষের শভেচ্ছা জানান এবং বলেন বর্ণ ধর্ম নির্বিশেষে এই অনুষ্ঠানে সবার অংশ গ্রহণ বাংলিদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে সং হত করেছে।

 এর পর ফয়সল চৌধুরির উপস্থাপনায় শুরু হয় সংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান।অনুষ্ঠানে শিল্পিরা গান ছাড়াও  নৃত্য পরিবেশন করে দর্শকদের মুগ্ধ করে।

            ঝালমুড়ি যখন প্রায় শেষের দিকে, অন্যান্য স্টলেও যখন বেচা কেনা প্রায় শেষ তখন দেখি ডঃ রহিদুল  মন্ডল শাড়ি পরা এক কানাডিয়ান মহিলাকে নিয়ে স্টলে স্টলে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আমাদের স্টলের সামনে এসে যখন বললেন, মিজ রোশেল স্কয়্যার, মিনিস্টার ফর স্পোর্টস, হেরিটেজ এন্ড কালচার, তখন চমকে উঠে হাত থেকে আমার ঝালমুড়ির কৌটা পড়ে যাবার অবস্থা। মহিলা সুন্দর, ভদ্র, মার্জিত সেজন্যে নয়। আমাদের কৃষ্টিকে সম্মান জানিয়ে উনি শাড়ি  পরে এসেছেন সেই জন্যে।

 

পাঠকের মন্তব্য

শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

জন্মদিন/শুভেচ্ছা/অভিনন্দন


শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

কাজ চাই/বাড়ি ভাড়া


শ্রেণীভুক্ত বিজ্ঞাপন

ব্যক্তিগত বিজ্ঞাপন/অনুভূতি


 
 
নিবন্ধন করুন/ Registration